kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ চৈত্র ১৪২৬। ৩১ মার্চ ২০২০। ৫ শাবান ১৪৪১

মাতৃভাষাকে অবজ্ঞা করে বড় হওয়া যায় না

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাংলা ভাষাকে অবহেলা বা অবজ্ঞা করার মতো কোনো সুযোগ নেই। কিন্তু দুঃখজনক বিষয় হলো, যে বাংলা ভাষার মর্যাদা রক্ষার জন্য দেশের মানুষ সংগ্রাম করেছে, জীবন দিয়েছে; সেই মাতৃভাষা বাংলাকে আমরা এখনো সর্বস্তরে চালু করতে পারিনি। এখনো আমাদের দেশে অনেকেই বাংলা ভাষাকে অবজ্ঞা করে বিদেশি ভাষাকেই প্রাধান্য দিতে চায়। আদালতের নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও সারা দেশেই বাংলার পরিবর্তে বিদেশি ভাষায় বড় বড় সাইনবোর্ড দেখা যায়। আবার অনেক মা-বাবা  সন্তানকে মাতৃভাষার পরিবর্তে বিদেশি ভাষায় শিক্ষিত করার অপচেষ্টাও চালিয়ে যাচ্ছেন। মাতৃভাষাকে অবজ্ঞা করে মানুষ কখনো জীবনে উন্নতি করতে পারে না। মাতৃভাষার পরিবর্তে বিদেশি ভাষায় শিক্ষিত করে সন্তানকে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলা কোনোক্রমেই সম্ভব নয়। মাতৃভাষাকে প্রাধান্য দিয়েই যেকোনো বিদেশি ভাষা শিখতে হবে। ইংরেজি আন্তর্জাতিক ভাষা। তাই আমাদের শিক্ষার্থীদের অবশ্যই ইংরেজি ভাষা শিখতে হবে, প্রথমে বাংলা ভাষা ভালোভাবে শিখতে হবে। বিদেশের সঙ্গে যোগাযোগের ক্ষেত্রে আমরা ইংরেজি বা অন্য যেকোনো বিদেশি ভাষা ব্যবহার করতে পারি; কিন্তু দেশের ভেতরে সর্বত্রই বাংলা ভাষাকে প্রাধান্য দিতে হবে। মাতৃভাষার মর্যাদা রক্ষা করা একটি জাতীয় দায়িত্ব ও কর্তব্য। দেশের সব রাজনৈতিক দল ও সংগঠনকেও সর্বস্তরে মাতৃভাষা প্রচলনের ব্যাপারে সোচ্চার হতে হবে। বাংলাকে প্রাধান্য দিতে হবে এবং সঠিক উচ্চারণ ও শুদ্ধ বানানসহ বাংলা ভাষা শিক্ষা দিতে হবে। একই সঙ্গে শিশু-কিশোরদের বাঙালি সংস্কৃতির প্রতিও আগ্রহী করে তুলতে হবে। মাতৃভাষা ও সংস্কৃতি চর্চার মাধ্যমেই শিশু-কিশোরদের মধ্যে দেশপ্রেম জাগ্রত হবে। কাজেই সর্বস্তরে বাংলা চালু করতে সরকারি পদক্ষেপের পাশাপাশি সবাইকেই এগিয়ে আসতে হবে।

বিপ্লব বিশ্বাস

ফরিদপুর।  

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা