kalerkantho

রবিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০২০। ৫ মাঘ ১৪২৬। ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

পরিবেশদূষণ নিয়ে এখনই ভাবতে হবে

৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের সামগ্রিক পরিবেশ নিয়েই ভাবার সময় এসেছে। বায়ুদূষণ থেকে বের হয়ে আসার জন্য একাধারে অনেক কাজ করতে হবে। ইটভাটাগুলোর নিয়মতান্ত্রিক উন্নত পদ্ধতির চলমানতা সৃষ্টি করতে হবে। শহরে ফ্যাক্টরিগুলোর সব জেনারেটরের সংযোগ বের করে দেওয়ার চুল্লির উচ্চতা সঠিক হতে হবে। অযথা ভাগাড়ে আগুন লাগিয়ে ময়লা পোড়া বন্ধ করতে হবে। গাড়িসহ সব এসির ব্যবহৃত গ্যাস জিএইচজি ফ্রি হতে হবে। সলিড পার্টিক্যাল নিঃসরণ করে এমন ফ্যাক্টরির আউটসাইড এক্সোস্ট সিস্টেমের ফিল্টারিং ব্যবস্থা চালু করতে হবে। রাস্তায় ধুলাবালি কমানোর জন্য পানি ছিটানোর উদ্যোগ ভালো; কিন্তু এভাবে পানি ছিটানোয় যাতে ভূগর্ভস্থ পানি ব্যবহার না করা হয়, সে ব্যাপারেও খেয়াল রাখা উচিত। যেভাবে ভূগর্ভস্থ পানি ব্যবহার করা হচ্ছে, এমনিতেই এ বিষয়টি শঙ্কার। পানি ও নদীদূষণও বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়াচ্ছে। পচনশীল বস্তু ছাড়া সব বস্তুকে বাজারজাত আমাদের দেশে বন্ধ করতে হবে। ফ্যাক্টরির ইটিপি ব্যবহারের বাধ্যবাধকতার সঙ্গে তাদের অনলাইন মনিটরিংয়ের আওতায় আনা হোক। হাসপাতালের বর্জ্য, ইলেকট্রনিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনার পূর্ণাঙ্গ একটি ব্যবস্থাপনা প্রয়োজন। রাস্তার ধারে ময়লা ফেলা বন্ধ করে ডাম্পিং এরিয়া তৈরি করা সময়ের দাবি।

সাঈদ চৌধুরী

শ্রীপুর, গাজীপুর।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা