kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৪ রবিউস সানি     

বাজার নিয়ন্ত্রণে গুরুত্ব দিন

১৬ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



আমাদের পেঁয়াজের চাহিদার ৬০ শতাংশ দেশি পেঁয়াজ দিয়ে পূরণ হয়। বাকিটা আমদানি করে মেটাতে হয়। সরকারি হিসাবে পেঁয়াজের চাহিদা অনুযায়ী উৎপাদন ও জোগান পর্যাপ্ত হলেও বাজারে তার কোনো প্রভাব নেই। ব্যবসায়ীদের দাবি, পেঁয়াজের জোগান কম, সরকারি হিসাব সঠিক নয়। পেঁয়াজের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধিতে কারো কারসাজি আছে কি না খতিয়ে দেখতে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। এ ধরনের অভিযান সারা বছর অব্যাহত রাখা দরকার। পেঁয়াজসহ নিত্যপণ্যের বাজার অস্থির হলে আমরা ভোক্তারা ক্ষতিগ্রস্ত হই। বাণিজ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে বলতে চাই, নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধিতে দরিদ্র মানুষ দিশাহারা হয়ে পড়ে। নিত্যপণ্যের বাজারের অস্থিরতা দূর করার জন্য সময়মতো পদক্ষেপ নিন। ব্যবসা-বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের প্রতি ক্ষেত্রেই সিন্ডিকেটের আস্ফাালন লক্ষণীয়। রাজনৈতিক ছত্রচ্ছায়ায় গড়ে ওঠা এ চক্র অত্যন্ত শক্তিশালী ও ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে যাচ্ছে। বাজার পরিস্থিতি পাল্টানোর জন্য সবার আগে প্রয়োজন বিক্রেতাদের অসৎ, লোভী ও প্রতারণামূলক মানসিকতার পরিবর্তন। পেঁয়াজের পাইকারি ও খুচরা দামের তফাতসহ সব বিষয় খতিয়ে দেখা প্রয়োজন।

বিলকিছ আক্তার

হরিশ্বর, কাউনিয়া, রংপুর।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা