kalerkantho

বুধবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৩ রবিউস সানি     

পেঁয়াজের ঝাঁজ এত বেশি!

১৬ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



অর্থনীতিবিদরা মুদ্রাস্ফীতিকে অর্থনীতির সবচেয়ে বড় শত্রু হিসেবে গণ্য করেন। কারণ মুদ্রাস্ফীতি মানুষের ক্রয়ক্ষমতা কমিয়ে দেয়, মধ্য ও নিম্ন আয়ের মানুষের কষ্ট বাড়িয়ে দেয় এবং ভোক্তাদের জীবনমানকে দুর্বিষহ করে তোলে। মানুষ একসময় হতাশায় নিমজ্জিত হয় এবং সামাজিক অস্থিরতা বেড়ে যায়। পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধি মুদ্রাস্ফীতির অস্থিরতাকেও ছাড়িয়ে গেছে। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ের পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধি অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে এখন বিশ্বরেকর্ড করতে চলেছে। পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের মূল্য কেজিপ্রতি ডাবল সেঞ্চুরি অতিক্রম করেছে এবং মফস্বল এলাকায় তারও বেশি মর্মে খবর গণমাধ্যমে এসেছে। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেছেন, পেঁয়াজের মূল্য সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে আছে। এগুলো যে ফাঁকা বুলি তা ভোক্তারা ভালোভাবে জানে এবং বোঝে। কোরবানির ঈদের আগেই পেঁয়াজের বাজারে অস্থিরতা লক্ষ করা গেছে। তখনই দেশের বাজারে পেঁয়াজের ঘাটতি পরিলক্ষিত হয়েছে। সরকার বিষয়টাকে একটুও গুরুত্ব দেয়নি। সরকার ব্যর্থ হয়েছে। কৃষকরা পেঁয়াজসহ অন্যান্য শস্য উৎপাদন করে ন্যায্য মূল্য পায় না, ফলে তারা উৎসাহ হারিয়ে ফেলে। সরকার যদি কৃষকদের ন্যায্য মূল্য ও প্রণোদনা দিত তাহলে পেঁয়াজের ঝাঁজ এত হতো না।

মো. জিল্লুর রহমান

গেণ্ডারিয়া, ঢাকা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা