kalerkantho

শনিবার । ১০ ফাল্গুন ১৪২৬ । ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৮ জমাদিউস সানি ১৪৪১

সামাজিক ও সরকারি উদ্যোগ জরুরি

৩ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ডেঙ্গুতে বেশ কয়েকজনের মৃত্যু এবং উচ্চপদের ব্যক্তিদের লাগামহীন বক্তব্যে ডেঙ্গু নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। জীবাণুবাহী এডিস মশার কামড়ে মানবদেহে ভাইরাসজনিত ডেঙ্গু হয়। সাধারণত চার ধরনের ভাইরাসের মাধ্যমে ডেঙ্গু হয়ে থাকে। দুই থেকে সাত দিনের মধ্যে এ জ্বর ভালো হয়। প্রতিরোধই একমাত্র উপায় এ থেকে মুক্তি পাওয়ার। ডেঙ্গু বিষয়ে জনগণের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে। এ জন্য ব্যাপক প্রচার দরকার। এডিসকে বলা হয় ভদ্র মশা। বৃষ্টির পানি জমে বা স্বচ্ছ পানি জমে, মশার এমন ডিম পাড়ার উপযোগী স্থান পরিষ্কার করতে হবে। এ নিয়ে সামাজিক উদ্যোগ নিতে হবে। এডিস মশা যাতে কামড়াতে না পারে এ জন্য ব্যক্তিগত উদ্যোগ দরকার। এডিস মশা দিনের বেলায় যেমন—সকালে বা সন্ধ্যায় কামড়ায়। জ্বর হলে অবহেলা না করে দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে। লাগামহীন বক্তব্য না দিয়ে মশক নিধনে কার্যকর পদক্ষেপ নিন। রোগ নির্মূল করতে দরকার গবেষণা। যদি বন্ধা এডিস মশা সৃষ্টি করা যায়, তাহলে এডিস মশার বংশ বৃদ্ধি রোধ করা সম্ভব।

মাহমুদুল হাসান সোহাগ

শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা