kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০২২ । ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ভিক্টোরিয়া পার্কে নজর দিন

২৪ নভেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভিক্টোরিয়া পার্কে নজর দিন

অসাধারণ এই স্থাপত্যশৈলীটি ঢাকার লক্ষ্মীবাজারে অবস্থিত। ইংরেজদের পৈশাচিক নির্যাতনের জ্বলন্ত সাক্ষ্য বহন করছে ঐতিহাসিক ভিক্টোরিয়া পার্ক বা বাহাদুর শাহ পার্ক। সদরঘাট এলাকার ঘিঞ্জি পরিবেশের মধ্যে পার্কটি যেন মরুভূমির বুকে ভেসে থাকা এক টুকরা বাগান। কিন্তু এই পার্কটি এখন দর্শনার্থীদের জন্য বিরক্তিকর জায়গা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

বিজ্ঞাপন

কিছু পথশিশু ও কিশোর পার্কের আশপাশে চকোলেট, ফুলের মালা, প্লাস্টিক বিক্রি করে। পার্কের দর্শনার্থীদের কাছে ভিক্ষাও করে থাকে। আবার সুযোগ পেলেই তারা মোবাইল, ব্যাগ, কানের দুল বা গলার হার ছিনতাই করে পালায়। এর বিনিময়ে তাদের চক্র থেকে পায় খাবার ও নেশাদ্রব্য। সমাজ থেকে বিচ্ছিন্ন এই পথশিশুরা মাদক সেবন ও চুরিকে অপরাধ হিসেবে মনে করে না।

এই দর্শনীয় স্থানটি কিশোর অপরাধ মুক্ত করতে এবং এই কিশোরদের উন্নত এক ভবিষ্যৎ দিতে প্রশাসনকে এগিয়ে আসতে হবে। যেসব সন্ত্রাসীচক্র এই কিশোরদের পরিচালনা করে, তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। কয়েকটি ভ্রাম্যমাণ স্কুল বাহাদুর শাহ পার্কে নিয়মিত এসব উদ্বাস্তু শিশু-কিশোরকে লেখাপড়া শেখায়। এ ধরনের প্রতিষ্ঠানকে আর্থিকভাবে সহায়তা প্রদানসহ সরকারি অথবা বেসরকারি উদ্যোগে আরো এমন স্কুল প্রতিষ্ঠা করা প্রয়োজন। বিভিন্ন অপরাধ করার পর যারা কিশোর সংশোধনাগার থেকে ছাড়া পায়, তাদের একটা তালিকা করতে হবে এবং নিয়মিত খোঁজ রাখতে হবে যেন আবার কোনো অপরাধে না জড়াতে পারে। তাই যেসব কারণে বাহাদুর শাহ পার্কে কিশোর অপরাধের সৃষ্টি, তা রোধ করে একটা সুন্দর পরিবেশ গড়ে তুলতে হবে।

শেখ শাহরিয়ার হোসেন

শিক্ষার্থী, সমাজকর্ম বিভাগ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়।



সাতদিনের সেরা