kalerkantho

সোমবার । ৯ কার্তিক ১৪২৮। ২৫ অক্টোবর ২০২১। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

পোস্টকার্ডের মূল্য প্রসঙ্গে

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পোস্টকার্ডের মূল্য প্রসঙ্গে

আমি বাংলাদেশ বেতারের নিয়মিত শ্রোতা। যাঁরা বেতারের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে পোস্টকার্ড ব্যবহার করে আসছেন, আমি তাঁদের মধ্যে একজন। প্রায় দুই বছর ধরে ডাক বিভাগের পোস্টকার্ড ও খামের মূল্য বৃদ্ধি করা হয়েছে। দুই বছর আগে পোস্টকার্ডের দাম ছিল এক টাকা ৫০ পয়সা, যা দুই টাকা করা হয়েছে। আর খামের দাম এখন পাঁচ টাকা। কিন্তু খামগুলো আকারে ছোটই রয়ে গেছে এবং মান বাজে হয়েছে। চিঠি ঢোকাতে গেলে খাম ছিঁড়ে ঢোকাতে হয়। কারণ এক কোনায় আঠা লাগানো থাকে, যা ছিঁড়ে খোলা ছাড়া উপায় থাকে না। আরেকটি সমস্যা হলো, এখনো বেশির ভাগ পোস্ট অফিসে এক টাকা ৫০ পয়সার পোস্টকার্ডই পাওয়া যায়। ফলে পোস্ট অফিসের কর্মকর্তারা আরো ৫০ পয়সার টিকিট লাগাতে বলেন। কিন্তু পোস্ট অফিসগুলো থেকে ৫০ পয়সার ভাঙতি দিতে না পারায় গ্রাহককে এক টাকাই দিতে হয়। ফলে পোস্টকার্ডের দাম পড়ে আড়াই টাকা। এতে অতিরিক্ত অর্থ খরচ করতে হয়। আমার পরামর্শ, যত দিন পর্যন্ত পোস্ট অফিসগুলোতে এক টাকা ৫০ পয়সার পোস্টকার্ডগুলো থাকবে, তত দিন এই দামেই যেন বিক্রি করা হয়। বিষয়গুলো ডাক বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বিবেচনায় নেবে বলে আশা করছি।

মো. ইয়াছিন আরাফাত

দৌলতপুর কলেজ (দিবা-নৈশ), খুলনা।



সাতদিনের সেরা