kalerkantho

রবিবার । ৬ আষাঢ় ১৪২৮। ২০ জুন ২০২১। ৮ জিলকদ ১৪৪২

ছিন্নমূল মানসিক ভারসাম্যহীনদের পুনর্বাসন প্রসঙ্গে

৯ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ছিন্নমূল মানসিক ভারসাম্যহীনদের পুনর্বাসন প্রসঙ্গে

রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন শহরের রেলস্টেশন, বাস ও লঞ্চ টার্মিনাল, ফুটপাত ও পার্কে ভাগ্যবিড়ম্বিত অসংখ্য ছিন্নমূল মানুষকে মানবেতর জীবন যাপন করতে দেখা যায়। তাদের বড় একটি অংশ মানসিক ভারসাম্যহীন। দুর্ভাগ্যবশত পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ার কারণে তারা অমানবিক জীবন যাপন করে। তাদের কেউ কেউ মানুষের কাছে চেয়ে খাবার সংগ্রহ করে, কেউ রাস্তার পাশের ডাস্টবিন কিংবা নর্দমা ঘেঁটে খাবার সংগ্রহ করে। এতে তাদের নিজের জীবন হুমকির মুখে পড়ে। এই দৃশ্য সাধারণ মানুষের কষ্টেরও কারণ হয়। অনেক সময় তারা ব্যস্ত সড়কের মাঝে অবস্থান নিয়ে সড়ক দুর্ঘটনার আশঙ্কা তৈরি করে। অনেকে নগ্ন বা অর্ধনগ্ন অবস্থায় চলাফেরা করে বলে পথচারীদের বিব্রতকর পরিস্থিতির মুখে পড়তে হয়। বিভিন্ন সময় তারা অমানবিক ও বর্বর আচরণের শিকার হয়। অনেক ক্ষেত্রে মানসিক ভারসাম্যহীন নারীরা ধর্ষণের শিকার হয় এবং পিতৃপরিচয়হীন সন্তান প্রসব করে। প্রায়ই এমন ঘটনা সংবাদমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোড়ন তোলে। কিছু স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ও মানবিক মূল্যবোধসম্পন্ন মানুষ বিচ্ছিন্নভাবে তাদের পাশে দাঁড়ায়। তবে তাদের মানবেতর জীবন যাপনের অবসান ঘটাতে হলে সরকারি তৎপরতা প্রয়োজন। তাদের পুনর্বাসন ও চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার সুযোগ সৃষ্টি করা যায়। এসব ছিন্নমূল মানসিক প্রতিবন্ধীদের পুনর্বাসনের বিকল্প নেই।

আবু ফারুক

বনরূপাপাড়া, বান্দরবান সদর, বান্দরবান।