kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ মাঘ ১৪২৭। ২৮ জানুয়ারি ২০২১। ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

কর্মসংস্থানের বড় কর্মসূচি চাই

৬ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



দেশে শিক্ষার হার বাড়লেও উপযুক্ত কর্মসংস্থানের হার বাড়েনি। ২০১৭ সালে সর্বশেষ শ্রমশক্তি জরিপ অনুযায়ী দেশে বেকারত্বের হার ৪.২ শতাংশ, যদিও এ সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। গত দেড় দশকে দেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৫ শতাংশ থেকে ৮ শতাংশে উন্নীত হলেও কর্মসংস্থান বৃদ্ধির হার বাড়েনি। শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের প্রতিবেদন অনুযায়ী ২০০৬-০৭ অর্থবছরে কর্মসংস্থান বৃদ্ধির হার ছিল ৩.৪৫ শতাংশ এবং ২০১৭ সালে তা ১.৩০ শতাংশে নেমে যায়। ২০১৯ সালে বিআইডিএসের তথ্য মতে, শিক্ষিত যুবকদের মধ্যে সম্পূর্ণ বেকার ৩৩.৩২ শতাংশ। বাকিদের মধ্যে ৪৭.৭ শতাংশ সার্বক্ষণিক চাকরিতে এবং ১৮.১ শতাংশ খণ্ডকালীন কাজে নিয়োজিত। সিপিডির এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, দেশে বেকার যুবকদের প্রায় ৪৬ শতাংশ বিশ্ববিদ্যালয় স্নাতক। পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্য অনুযায়ী দেশে ‘লকডাউনের’ সময় সার্বিক বেকারত্বের হার ১০ গুণ বেড়ে যায়। বর্তমানে দেশে গরিব মানুষের সংখ্যা পাঁচ কোটিরও বেশি। বেকারত্বের কারণে সমাজে অপরাধ বেড়ে যায়। এ অবস্থায় এসব মানুষকে টেনে তুলতে হলে প্রয়োজন বড় ধরনের কর্মসংস্থান কর্মসূচি।

জোবায়ের জুবেল

খোজারখলা, সিলেট সদর, সিলেট।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা