kalerkantho

সোমবার । ২০ জানুয়ারি ২০২০। ৬ মাঘ ১৪২৬। ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

রেলের সেবা বাড়ান

১৪ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রেলের সেবা বাড়ান

খুলনা থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহীগামী আন্ত নগর কপোতাক্ষ এক্সপ্রেস ট্রেনে আমরা প্রায় নিয়মিত যাতায়াত করি। কিছুদিন আগের ভ্রমণে পুলিশ ও টিটির এক অভূতপূর্ব চুক্তিবিনিময় দেখে খটকা লাগল। আমরা পোড়াদহ রেলস্টেশন থেকে রাজশাহী যাব। রাস্তায় যানজট থাকায় নির্ধারিত সময়ের আগে স্টেশনে পৌঁছতে পারিনি। প্রায় দৌড়ে ট্রেনে উঠতেই দায়িত্বরত রেল পুলিশ সদস্য জিজ্ঞেস করেন টিকিট কেটেছি কি না? না-বোধক উত্তর দিলে তিনি একটি ফাঁকা আসনে আমাদের বসিয়ে দেন। পরে টিটি এলে আমরা মানিব্যাগ থেকে টাকা বের করতে উদ্যত হলে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্য বাধা দেন এবং টিটিকে বলেন, ‘তারা আমার লোক।’ টিটি মুচকি হেসে অন্য বগিতে চলে যান। পরে তিনি আমাদের থেকে নির্ধারিত ভাড়া এবং গেট পাস বাবদ আরো ১০ টাকা আদায় করেন। আমরা বললাম, টিটির কাছে তো আমরা টিকিটের টাকা দিতে চাইলাম তখন আপনি বাধা দিলেন। এ কথায় তিনি রাগ করেন। আমরা শিক্ষার্থী এবং গণমাধ্যমে কাজ করি পরিচয় দিলে তিনি হুমকি দিয়ে বলেন, ‘বেশি বাড়াবাড়ি করতে গিয়ে বিপদ ডেকে এনো না।’ এভাবে দুর্নীতির মাধ্যমে রাষ্ট্রীয় কোষাগারের টাকা মেরে দিলে দেশ কিভাবে উন্নয়নের পথে এগোবে? এ ব্যাপারে সরকারের কার্যকরী উদ্যোগ এবং জাতীয় শুদ্ধাচার কর্মসূচি গ্রহণ করার জন্য আহ্বান করছি।

মো. আখতার হোসেন আজাদ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা