kalerkantho

শনিবার । ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৯ রবিউস সানি ১৪৪১     

অনুকরণীয় শিক্ষক চাই

১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



অনুকরণীয় শিক্ষক চাই

শিক্ষকদের নিয়ে আজকাল নানা ধরনের কথা ও অভিযোগ শোনা যায়। ছাত্র-শিক্ষক সম্পর্কটি মানবিক ও শ্রদ্ধার। আমাদের প্রত্যেক শিক্ষার্থীর নীরব আশা এটিই—শিক্ষকরা যেন আমাদের মধ্যে সেই জায়গাটি তৈরি করে দেন, যাতে শিক্ষার মূল উদ্দেশ্য বুঝতে এবং কাজে লাগাতে পারি। কোনোভাবেই যেন আমাদের ভেতরের উদ্যম দমে না যায়; জাতির ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি নিয়ে অশ্রদ্ধার প্রশ্ন না ওঠে। সরকার শিক্ষাক্ষেত্রকে ব্যবসাবান্ধব হওয়া থেকে আটকাতে নানা পদক্ষেপ নিয়েছে। মাঝে মাঝে জানতে ইচ্ছে হয়, এখনকার শিক্ষার্থীদের কাছে তার শিক্ষক ছোটবেলার স্কুলের শিক্ষকের মতো অভিভাবকসুলভ কি না? তারা আগের মতো শিক্ষকদের শ্রদ্ধা করে কি না। মূল্যবোধ যখন ব্যক্তির দায়িত্ব সম্পর্কে সজাগ থাকতে দেয় না এবং পারিপার্শ্বিক নেতিবাচক পরিস্থিতির পক্ষে কাজ করে, কর্তৃত্ব করে; তখন মনুষ্য ধর্ম একজন মানুষকে অনৈতিক মূল্যবোধে ঢেকে দেয়। শিক্ষকতা অন্য পেশার মতো একটি সাধারণ পেশা নয়। শিক্ষকরা আমাদের অভিভাবক এবং মনন গড়ে দেওয়ার কারিগর। তাঁরা সব সময়ই আমাদের পথসঞ্চালক। এ জন্য সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অনুকরণীয় শিক্ষক চাই।

সাদিয়া কারিমুন

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা