kalerkantho

শুক্রবার । ১৪ কার্তিক ১৪২৭। ৩০ অক্টোবর ২০২০। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

পাটের দাম বাড়ান

১২ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



পাটের দাম বাড়ান

বাংলাদেশের প্রধান অর্থকরী ফসলগুলোর মধ্যে পাট অন্যতম। ফরিদপুর জেলায় সবচেয়ে বেশি পাট উৎপাদিত হয়। কিন্তু ফরিদপুর জেলাতেই গত কয়েক বছরে পাটের আবাদ আশঙ্কাজনক হারে কমে গেছে। কিন্তু কেন পাট চাষ কমে যাচ্ছে—সে প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গেলেই বোঝা যায়, প্রান্তিক কৃষকরা ন্যায্য দাম না পাওয়ায় পাট চাষের আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে। এক মণ পাট উৎপাদনে যে পরিমাণ টাকা খরচ হয় তার অর্ধেক টাকায় পাট বিক্রি করতে হয়। এটি একজন কৃষকের জন্য কষ্টের বিষয়। সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন-ভাতা বেড়েই চলেছে প্রতিনিয়ত; কিন্তু পাটের দাম বাড়েনি এক টাকাও, বরং আরো কমেছে। বাংলাদেশ কৃষিনির্ভর দেশ, তবু কৃষকরা তাদের ন্যায্য অধিকার পায় না। কৃষকরা নানাভাবে অবহেলা ও বঞ্চনার শিকার। সরকারের কাছে বিশেষভাবে অনুরোধ করছি, পাটের দাম বাড়ানো হোক। কৃষকদের অধিকার নিশ্চিত করা হোক। পাটশিল্প রক্ষায় এগিয়ে আসুক।

মো. বিল্লাল হোসেন

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া।

মন্তব্য