kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ নভেম্বর ২০১৯। ২৭ কার্তিক ১৪২৬। ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

দ্রুত বিচারে ট্রাইবু্যুনাল চালু হোক

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দ্রুত বিচারে ট্রাইবু্যুনাল চালু হোক

সরকার মাদক সমস্যা থেকে দেশকে দ্রুত মুক্ত করার লক্ষ্যে ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন গত বছর সংশোধন করেছে। সংশোধিত আইনে মাদকদ্রব্য অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনাল স্থাপনের নির্দেশনা রয়েছে। আইনটি পাস হওয়ার পর এক বছর অতিবাহিত হওয়া সত্ত্বেও সরকার ট্রাইব্যুনাল স্থাপন করেনি। এতে মাদকদ্রব্য-সংক্রান্ত মামলার জট তৈরি হয়েছে সারা দেশে। সুপ্রিম কোর্টের প্রতিবেদন অনুযায়ী গত ৩০ জুন পর্যন্ত আদালতগুলোয় বিচারাধীন মাদক মামলা ছিল এক লাখ ৭০ হাজার ২৪২টি। পাঁচ বছরেরও বেশি সময় ধরে চলমান মামলার সংখ্যা ৩১ হাজারের বেশি। জুনের পর বিচারাধীন মামলার সংখ্যা আরো বেড়েছে। মাদক আমাদের সমাজে বড় উৎপাত হিসেবে দেখা দিয়েছে। ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদকে তরুণ-কিশোররা অভ্যস্ত হয়ে পড়ছে এবং এতে সামাজিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। বিশেষজ্ঞদের অভিমত, মাদকাসক্তি কমানোর একটি কার্যকর পথ হলো আইনের দ্রুত প্রয়োগ ও কঠোর শাস্তির বিধান। এটিই মাদকাসক্তি ও মাদক কারবার নিয়ন্ত্রণে সবচেয়ে কার্যকর বৈধ পথ। এ ছাড়া তরুণ-কিশোরদের অবসর কাটানোর জন্য সুস্থ বিনোদনের ব্যবস্থা, শিক্ষাকে আনন্দময় ও গঠনমূলক করা, পারিবারিক বন্ধন বাড়ানোর মতো বিষয়গুলোর ওপর জোর দিতে হবে। আমরা চাই, বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড বন্ধ করে মাদক নির্মূল আইনে দ্রুত বিচারের সব বাধা দূর হোক।

শুভ্র ঘোষ, নতুন বাজার, কলকলিয়াপাড়া, মাগুরা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা