kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সবিশেষ

তৈরি হচ্ছে বিশ্বের দীর্ঘতম ‘নিমজ্জিত’ টানেল

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তৈরি হচ্ছে বিশ্বের দীর্ঘতম ‘নিমজ্জিত’ টানেল

বাল্টিক সাগরের তলা দিয়ে টানেল নির্মাণ হচ্ছে ইউরোপে। ‘ফেহমার্নবেল্ট ফিক্সড লিংক’ নামের এই সুড়ঙ্গপথ জার্মানি ও ডেনমার্ককে সংযুক্ত করবে। সড়ক বা রেল যোগাযোগের সমন্বয়ে নির্মাণাধীন ১৮ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের কাঠামোটি হবে বিশ্বে এ ধরনের সবচেয়ে দীর্ঘ টানেল।

এক দশকের বেশি সময় ধরে পরিকল্পনার পর ২০২০ সালে এই টানেলের নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

নির্মাণকাজ শেষ হবে ২০২৯ সাল নাগাদ। বাল্টিক সাগরতলের ৪০ মিটার নিচ দিয়ে যাবে এই টানেল। এতে খরচ হবে ৭১০ কোটি ডলার। জার্মানির ফেহমার্ন দ্বীপ ও ডেনমার্কের লোলান্ড দ্বীপের মাঝের প্রণালিজুড়ে নির্মিত হবে সুড়ঙ্গপথটি। এতে স্থলপথে দুই দেশের দূরত্ব অনেকটাই কমে আসবে।

বর্তমানে ফ্রান্স ও ইংল্যান্ডকে সংযোগকারী চ্যানেল টানেলের দৈর্ঘ্য ৫০ কিলোমিটার, যা বাল্টিক সাগরের তলে নির্মাণাধীন টানেলের চেয়ে অনেক বড়। কিন্তু ‘ফেহমার্নবেল্ট ফিক্সড লিংক’-এর নির্মাতারা বলছেন, ফ্রান্স-ইংল্যান্ডকে সংযোগকারী টানেলটি মাটি খোদাই করে (বোরিং প্রক্রিয়া) তৈরি হলেও জার্মানি ও ডেনমার্ককে সংযোগকারী টানেলটির কাঠামো পানির ওপরে নির্মাণ করে পরে ডোবানো হবে। সে কারণেই একে বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘ ‘নিমজ্জিত টানেল’ বলা হচ্ছে।

ডেনমার্কের দিকে টানেলের নির্মাণযজ্ঞ এরই মধ্যে চোখে পড়ছে। টানেলের জন্য কংক্রিটের কাঠামো নির্মাণ করা হচ্ছে, যা পরে সাগরে ডোবানো হবে। সংশ্লিষ্ট ড্যানিশ কম্পানির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হেনরিক ভিনসেনস্টেন জানান, পানির নিচে টানেলের প্রথম অংশ দৃশ্যমান হবে ২০২৪ সালে। সূত্র : সিএনএন

 

 



সাতদিনের সেরা