kalerkantho

সোমবার । ২৮ নভেম্বর ২০২২ । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

বেড়ানো

পদ্ম-শাপলার লাউয়াল বিল

মনিরুজ্জামান মনির, আঞ্চলিক প্রতিনিধি, সোনারগাঁ   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পদ্ম-শাপলার লাউয়াল বিল

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার লাউয়াল বিলে পদ্ম-শাপলার সৌন্দর্য উপভোগ করতে আসে দূর-দূরান্তের অনেকেই। ছবি : কালের কণ্ঠ

সকালের মৃদুমন্দ বাতাসে দুলছে জলজ ফুল। পাখির কিচির মিচির ও ফুরফুরে পর্যটকদের গুঞ্জনের অনুরণন চারদিকে। রাজধানীর উপকণ্ঠে অবস্থিত রূপগঞ্জের লাউয়াল বিলের দৃশ্য এটি।

লাউয়াল বিলে গেলে দেখা যাবে লাল রঙের শাপলা ও পদ্ম ফুলের সমারোহ।

বিজ্ঞাপন

বালিহাঁস, পানকৌড়ি, বিভিন্ন জাতের বকসহ জলচর পাখি এখানকার অন্যতম আকর্ষণ।

লাউয়াল বিলের প্রতি স্থানীয় প্রকৃতিপ্রেমী ও বাইরের পর্যটকদের আকর্ষণ নতুন নয়। তবে ২০১৮ সালে বিলের পাশে স্থানীয় কয়েক বন্ধুর গড়ে তোলা ‘পদ্ম শাপলা’ রিসোর্ট এর পরিচিতি আরেকটু বাড়িয়ে দিয়েছে। রিসোর্ট কর্তৃপক্ষ এই বিলের সৌন্দর্য উপভোগ করার জন্য কাঠ-বাঁশের সেতু, শিশুদের বিনোদনের জন্য নানা ধরনের রাইড, বসার আয়োজন এবং ডিঙি নৌকার ব্যবস্থা করেছে। সেই থেকে বছর চারেক ধরে এই বিলের সৌন্দর্য দেখার জন্য বর্ষা ও শরৎকালে পর্যটকদের বেশ ভিড় জমছে। পর্যটকদের ওপর নির্ভর করেই স্থানীয় শতাধিক পরিবার নানাভাবে জীবিকা নির্বাহ করছে।

গত শুক্রবার ভোরে লাউয়াল বিলে গিয়ে দেখা যায়, বিলের চারদিকে থইথই পানি। ফুটে রয়েছে অসংখ্য পদ্ম ও লাল রঙের শাপলা ফুল। বিলের চারদিকের গাছপালায় পাখিদের কলরব। এখন শরৎকাল। বর্ষার পানি এখনো ভালোভাবেই রয়ে গেছে পুরো বিলে। শাপলা-পদ্মের পাশাপাশি নানা জলজ লতাগুল্মে ছাওয়া বিলের স্নিগ্ধ-শ্যামল সৌন্দর্যে মন ও চোখ দুই-ই জুড়িয়ে যায়।

ঘড়ির কাঁটায় সকাল ৬টা ৪৫ মিনিটে রাজধানীর অনেক বাসিন্দাই ঘুমের অতলে তলিয়ে থাকলেও রূপগঞ্জের দাউদপুর ইউনিয়নের জিন্দা এলাকার সড়কে এক এক করে থামছিল অনেক ব্যক্তিগত গাড়ি। ওই সব গাড়িতে ছিল নিসর্গের শোভা উপভোগ করতে আসা নারী-পুরুষ ও শিশুর দল।

ঢাকার মগবাজারের বাসিন্দা আলেয়া ও হাফিজ দম্পতি জানালেন, কয়েক বছর ধরে তাঁরা শুক্র, শনিবারসহ ছুটি পেলেই এ বিলের ভোরের সৌন্দর্য উপভোগ করতে সন্তানদের নিয়ে এখানে চলে আসেন। সকাল ৮টার পর ফুল ফোটা ধীরে ধীরে বন্ধ হয়ে গেলে ফিরে যান তাঁরা ঢাকায়। শুক্রবার এই দম্পতির মতো কয়েক শ নারী-পুরুষ ও শিশুকে দেখা গেল ডিঙি নৌকায় চড়ে বিলের সৌন্দর্য উপভোগ করতে।

পদ্ম শাপলা রিসোর্টের ব্যবস্থাপক আল আমিন চৌধুরী কালের কণ্ঠকে বলেন, এ বিলে ভোরের হাওয়ায় শাপলা-পদ্মের সৌন্দর্য ও পাখিদের কলকাকলি উপভোগ করতে পর্যটকরা ভিড় জমায়। মূলত রাজধানী ও আশপাশের বাসিন্দারা এখানে আসে। ভোর থেকে সকালেই বিলের পরিবেশ থাকে সবচেয়ে সুন্দর।



সাতদিনের সেরা