kalerkantho

শনিবার । ১ অক্টোবর ২০২২ । ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সেই অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে বরগুনা থেকে প্রত্যাহার

► জেলা পুলিশ ও ছাত্রলীগের তদন্ত কমিটি
► বরগুনায় বাড়াবাড়ি হয়েছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বরগুনা প্রতিনিধি   

১৭ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সেই অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে বরগুনা থেকে প্রত্যাহার

বরগুনায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের সময় পুলিশ লাঠিপেটা করে। গত সোমবার দুপুরে জেলা শিল্পকলা একাডেমির সামনে। ছবি : সংগৃহীত

বরগুনায় শোক দিবসের দিন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের লাঠিপেটার ঘটনায় আলোচিত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহরম আলীকে বরগুনা থেকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশের বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি এস এম আক্তারুজ্জামান জানান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে বরিশাল রেঞ্জ ডিআইজি কার্যালয়ে যুক্ত করা হয়েছে।

গত সোমবার জাতীয় শোক দিবসে বরগুনা-১ আসনের সংসদ সদস্য ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুর সামনেই ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ওপর পুলিশ লাঠিপেটা করে। এ ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে সারা দেশে আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় গতকাল সন্ধ্যায় বিক্ষোভ মিছিল করে জেলা আওয়ামী লীগ।

এদিকে সোমবার  রাত ১০টার দিকে বরগুনা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে জেলা ছাত্রলীগ। এ সময় পুলিশের লাঠিপেটাকে সমর্থন জানিয়ে পুলিশকে ধন্যবাদ জানায় বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল কবির রেজা।

অন্যদিকে ওই রাতেই বরগুনা প্রেস ক্লাবে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনাসভা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সংসদ সদস্য ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু বলেন, ‘জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ওপর নির্বিচারে লাঠিপেটা করে পুলিশ। তাদের উদ্দেশ্য ছিল মারপিট। আমরা চাই তাঁর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বিষয়টি দেখুক এবং তাঁকে বিচারের আওতায় আনুক। ’ এ সময় তিনি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহরম আলীকে বরখাস্ত করে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান।

জেলা পুলিশের তদন্ত কমিটি

বরগুনায় শোক দিবসে স্থানীয় সংসদ সদস্য ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুর সামনেই ছাত্রলীগের সংঘর্ষ থামাতে পুলিশের লাঠিপেটার ঘটনায় সোমবার রাতেই বরগুনা জেলা পুলিশ তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। বরগুনা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) এস এম তারেক রহমানকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পাথরঘাটা সার্কেল) তোফায়েল হোসেন, পুলিশ পরিদর্শক (পাবলিক রিলেশন অফিসার) শাহাবুদ্দীন খান। কমিটিকে দুই দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

বরগুনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মেহেদী হাসান বলেন, শোক দিবসের দিন ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের সময় পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছিল। এ ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ছাত্রলীগের তদন্ত কমিটি

গত সোমবার বরগুনা জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে অনাকাঙ্ক্ষিত সংঘর্ষ ও হামলার ঘটনা তদন্তে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন বিদ্যুৎকে প্রধান করে দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির অন্য সদস্য হলেন উপসম্পাদক আব্দুর রশিদ রাফি। গতকাল কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিকে আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

বরগুনায় বাড়াবাড়ি হয়েছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, বরগুনায় পুলিশের হাতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের প্রহৃত হওয়ার ঘটনাটি বাড়াবাড়ি হয়েছে।  

গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন। এর আগে তাঁর সঙ্গে বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস সাক্ষাৎ করেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বরগুনার ঘটনা যেটা আমরা দেখেছি, এটা একটু বাড়াবাড়ি করেছেন। কেন অহেতুক এটা হলো আইজি সাহেবকে বলা হয়েছে, আইজি সাহেব ব্যবস্থা নিচ্ছেন। ’

কার বাড়াবাড়ি ছিল? এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এটা তো আমি ফেসবুকে দেখেছি, আপনারা যেমন দেখেছেন। এটার একটি তদন্ত কমিটি হয়েছে, তদন্ত হয়ে আসুক। আমার কাছে মনে হয়েছে, এ জিনিসটা এতখানি বাড়াবাড়ি করাটা উচিত হয়নি। কার বাড়াবাড়িটা ছিল, সেটা জানা যাবে ইনভেস্টিগেশনের পর। ’



সাতদিনের সেরা