kalerkantho

বুধবার । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সড়ক দুর্ঘটনা

ঢাকা ও কালিয়াকৈরে কলেজছাত্রসহ নিহত ৮

► অন্যান্য স্থানে আরো নিহত ৩
► নিহত জোবায়ের মিরপুর কমার্স কলেজের ছাত্র, তাঁর বাড়ি সিরাজগঞ্জ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



ঢাকা ও কালিয়াকৈরে কলেজছাত্রসহ নিহত ৮

মিরপুরে বাস-লেগুনা সংঘর্ষে আহত রিকশাচালক রবিউল ইসলামকে ঢাকা মেডিক্যালে আনা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়। ছবি : কালের কণ্ঠ

রাজধানীর মিরপুর বেড়িবাঁধের নবাবেরবাগ এলাকায় গতকাল রবিবার দুপুরে একটি যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে লেগুনার সংঘর্ষে তিনজন নিহত এবং পাঁচজন আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন মিরপুর কমার্স কলেজের শিক্ষার্থী জোবায়ের হোসেন (২০) ও রিকশাচালক রবিউল ইসলাম রুবেল (৪০) ও নির্মাণ শ্রমিক মিলন গাজী  (৫০)।

এর আগে শনিবার রাত ১১টার দিকে গাজীপুরের কালিয়াকৈরে দুটি যাত্রীবাহী বাস ও অটোরিকশার ত্রিমুখী সংঘর্ষে পৌর ছাত্রদল নেতা, অটোরিকশার চালকসহ পাঁচজন নিহত হয়েছেন। ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের মাকিষবাথান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় নিহতদের পরিবারে চলছে কান্নার রোল। এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া। এ ছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছে আরো তিনজন।

মিরপুরে গতকালের বাস-লেগুনা সংঘর্ষে আহত হন ছয়জন। তাঁদের মধ্যে মিলন গাজী গত রাত ১০টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মারা যান। বাকিদের মধ্যে আলামিন (৩৫), অনিক (২৫) ও রানিম (২৫) নামের তিনজন সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ও জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল (পঙ্গু) চিকিৎসাধীন। হতাহতরা সবাই লেগুনার যাত্রী ছিলেন। পুলিশ ‘কিরণমালা পরিবহন’ নামের বাসটি আটক করলেও চালক ও সহকারী পালিয়ে গেছে।

রাজধানীর শাহ আলী থানার ওসি আমিনুল ইসলাম জানান, নিহত জোবায়ের মিরপুর কমার্স কলেজের ছাত্র। তাঁর বাড়ি সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে। স্বজনরা এলে আরো বিস্তারিত জানা যাবে। রিকশাচালক রুবেলের বাড়ি কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে। তাঁর বাবার নাম শাহজাহান মণ্ডল। তিনি মিরপুর-১৪ নম্বর এলাকায় থাকতেন। বাসটিকে ঘটনাস্থল থেকে জব্দ করা হয়েছে।

নিহত মিলন গাজীর  ছোট  ভাই রুবেল গাজী বলেন, মিলন পেশায় নির্মাণ শ্রমিক ছিলেন। সাভারের কমলাপুর এলাকায় থাকতেন। ঝালকাঠির সদর উপজেলার পিস্তাকাঠি গ্রামের মৃত তানজার আলী গাজীর ছেলে। এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক ছিলেন তিনি। বাসা থেকে বিরুলিয়া যাওয়ার উদ্দেশে বের হয়েছিলেন।

পুলিশের মিরপুর ট্রাফিক বিভাগের পল্লবী জোনের বেড়িবাঁধ এলাকার ট্রাফিক ইন্সপেক্টর (টিআই) বিশ্বজিৎ দাস জানান, বাসটি ওভারটেক করতে গিয়ে সামনে থেকে আসা লেগুনাকে ধাক্কা দেয়। এই সংঘর্ষে লেগুনাটি দুমড়েমুচড়ে গেছে। লেগুনার যাত্রীরাই হতাহত হন। বাসের কোনো যাত্রী আহত হয়নি।

গতকাল সন্ধ্যায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, হাসপাতালে নিহত ও আহতদের স্বজনরা এখনো আসছেন। সুরতহাল করার জন্য রুবেলের লাশ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

নিহত রুবেলের ভাই ছোটন বলেন, ‘আমার ভাই ঢাকায় রিকশা চালাতেন। ঈদের চার-পাঁচ দিন পর গ্রামের বাড়ি থেকে ঢাকায় আসেন। এনজিও থেকে লোন নিয়েছেন তিনি। লোনের কিস্তি দিতে পারছিলেন না। এ কারণে ঢাকায় এসে রিকশা চালানো শুরু করেন। তাঁর দুটি মেয়ে ও একটি ছেলে রয়েছে। ’

আমাদের কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি জানান, শনিবার রাত ১১টার দিকে গাজীপুরের কালিয়াকৈরের মাকিষবাথান এলাকায় দুটি যাত্রীবাহী বাস ও অটোরিকশার ত্রিমুখী সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন—টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরের শেখবাড়ী এলাকার আইয়ুব আলীর ছেলে অটোরিকশাচালক নজরুল ইসলাম (৩২), কালিয়াকৈরের লতিফপুর এলাকার বাবুল মিয়ার ছেলে সাইদুল ইসলাম রুবেল (২৭), একই থানার হিজলতলী এলাকার মৃত আজিম উদ্দিনের ছেলে আতিকুল ইসলাম (৪২), বরগুনা সদর থানার আংগারপাড়া এলাকার মমিন উদ্দিন সিকদারের ছেলে মেহেদী হাসান বাবলু (৪৫) ও যশোরের মাগুরা থানার দহর এলাকার আতাউর রহমানের ছেলে শাহিন উদ্দিন (২৮। তাঁদের মধ্যে রুবেল কালিয়াকৈর পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। চারজন কারখানায় কাজ করতেন।

ঘটনার পর পুলিশ অটোরিকশাকে চাপা দেওয়া ইতিহাস পরিবহনের বাসটি আটক করলেও এর চালক ও সহযোগী পালিয়ে যায়। কালিয়াকৈর পরিবহনের বাসটিও পালিয়ে যায়। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, ইতিহাস পরিবহন এবং অটোরিকশাটি বেপরোয়া গতির কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী পুলিশ, এলাকাবাসী ও নিহতদের পরিবার সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাত ১১টার দিকে অটোরিকশায় কর্মস্থলে বাড়ি ফিরছিলেন পৌর ছাত্রদল নেতা রুবেলসহ চারজন। অটোরিকশাটি মাকিষবাথান এলাকায় পৌঁছলে কালিয়াকৈর পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে ধাক্কা লেগে সামনের দিকে যায়। এ সময় কালিয়াকৈর থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী ইতিহাস পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। ত্রিমুখী সংঘর্ষে যাত্রীবোঝাই অটোরিকশাটি মহাসড়কের ওপর দুমড়েমুচড়ে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই অটোরিকশাচালক নজরুল ও যাত্রী বাবলু মারা যান। পরে হাসপাতালে নেওয়া হলে অন্য তিনজন মারা যান।

কালিয়াকৈর থানার ওসি আকবর আলী খান বলেন, নিহতদের লাশ উদ্ধার করে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

পৌর ছাত্রদল নেতা রুবেলের মৃত্যুতে তাঁর লতিফপুরের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া। স্বজনদের কান্নায় ভারী হয়ে উঠেছে এলাকার বাতাস। একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে প্রাগলপ্রায় রুবেলের মা মনোয়ারা বেগম।

তাড়াশ-রায়গঞ্জ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি জানান, সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার তাড়াশ-নিমগাছি আঞ্চলিক সড়কে ধাপের ব্রিজ এলাকায় গতকাল দুপুর ১টার দিকে বাস ও ট্রাকের সংঘর্ষে মাঝে পড়ে মোটরসাইকেল আরোহী একজন নিহত হয়েছেন। এ সময় মোটরসাইকেলে থাকা আরো দুজন গুরুতর আহত হয়েছেন। আহতদের পা বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। নিহত ব্যক্তি হলেন শেরপুর পৌর এলাকার অনিল চন্দ্রের ছেলে আসীম (২৭)। আহতরা হলেন তাড়াশ সদরের আফাল হোসেন ও খুটিগাছা গ্রামের কৃষ্ণ।

মাগুরা প্রতিনিধি জানান, মাগুরা-যশোর সড়কে মাগুরা সদরের মঘির ঢাল এলাকায় গতকাল রবিবার বিকেল ৩টার দিকে যশোরগামী একটি যাত্রীবাহী বাসচাপায় অজ্ঞাতপরিচয় (৪৫) এক পথচারী নিহত হয়েছেন। মাগুরা সদর থানার ওসি নাসির উদ্দিন এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

শ্রীবরদী (শেরপুর) প্রতিনিধি জানান, শনিবার রাতে ঝিনাইগাতী-শেরপুর সড়কের ঝিনাইগাতী উপজেলা সদরে ডাকাবর এলাকায় ব্র্যাক অফিসের সামনে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় ফজল হক (৬৫) নামের এক ব্যক্তি মারা গেছেন। ফজল হক উপজেলার নলকুড়া ইউনিয়নের পশ্চিম ডাকাবর গ্রামের মৃত কাজিম উদ্দিনের ছেলে। ঝিনাইগাতী থানার ওসি মনিরুল আলম ভূঁইয়া জানান, পুলিশ এ ঘটনায় মোটরসাইকেলসহ এর চালক শান্তকে আটক করেছে।

 



সাতদিনের সেরা