kalerkantho

শুক্রবার । ১২ আগস্ট ২০২২ । ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৩ মহররম ১৪৪৪

সবিশেষ

যুদ্ধক্ষেত্র থেকে অনলাইনে ক্লাস নিচ্ছেন যিনি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৪ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুদ্ধক্ষেত্র থেকে অনলাইনে ক্লাস নিচ্ছেন যিনি

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে ব্যতিক্রমী, নতুন অনেক কিছুই ঘটতে দেখেছে বিশ্ব। তবে যুদ্ধক্ষেত্র থেকে অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার ঘটনা হয়তো একটু বেশিই ব্যতিক্রমধর্মী। ঠিক এ কাজটি নিয়মিতভাবে করছেন ইউক্রেনের বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক ফেদির শানদর। ৪৭ বছর বয়সী অধ্যাপক ফেদির শানদর ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন শুরু হওয়ার পরপরই সেনাবাহিনীতে নাম লিখিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

কিন্তু শিক্ষাদানে বিরাম দেননি। অনলাইনে হলেও মিটিয়ে চলেছেন শিক্ষার্থীদের জ্ঞানতৃষ্ণা। যুদ্ধের বৈরী পরিস্থিতির মধ্যেও সপ্তাহে দুইবার পর্যটন ও সমাজবিজ্ঞানের মতো বিষয়ে ক্লাস নিচ্ছেন সরাসরি যুদ্ধের ট্রেঞ্চ (পরিখা) থেকে। এ কাজে ব্যবহার করছেন নিজের স্মার্টফোন। শানদর বলেন, ‘আমি ২৭ বছর ধরে শিক্ষকতা করে আসছি। হুট করেই তা ছেড়ে দিতে পারি না। এটাই আমার মূল কাজ। ’ রাশিয়া যখন ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেন আগ্রাসন শুরু করে তখন শিক্ষকতায় ব্যস্ত ছিলেন শানদর। নিজের দেশ ও স্ত্রী-সন্তানের সুরক্ষার কথা ভেবে নির্বিরোধী জীবনে অভ্যস্ত মানুষটিও যোগ দেন যুদ্ধে। শানদরের অনলাইন ক্লাস সাড়া ফেলেছে শিক্ষার্থীদের মধ্যেও। তাঁর শিক্ষার্থী ইরিনা (২০) বলেন, ‘এমনকি যেসব শিক্ষার্থী আগে ক্লাসে অনুপস্থিত থাকত, তারাও প্রতিটি লেকচারে যোগ দিচ্ছে...স্যার সব সময় বলেন, ‘আমাদের তীক্ষধী হতে হবে, আমরা বুদ্ধিদীপ্ত একটি রাষ্ট্রের জন্য লড়াই করছি। ’

তবে যুদ্ধক্ষেত্র থেকে ক্লাস নেওয়া মোটেই সহজ নয়। অনেক সময়ই শিক্ষার্থীরা শানদরের পেছনে গোলাবর্ষণের আওয়াজ শুনতে পান। তিনি বলেন, ‘একবার এক ক্লাসের সময় গোলাগুলির আওয়াজ খুব বেশি ছিল। ’ সূত্র : বিবিসি

 



সাতদিনের সেরা