kalerkantho

শনিবার । ২৫ জুন ২০২২ । ১১ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৪ জিলকদ ১৪৪৩

খুঁটিতে বাইকের ধাক্কা, প্রাণ গেল দুই বন্ধুর

বিসিএস পরীক্ষার্থীসহ আরো চারজন নিহত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৮ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



খুঁটিতে বাইকের ধাক্কা, প্রাণ গেল দুই বন্ধুর

বরিশাল নগরে একটি লাইট পোস্টের সঙ্গে দ্রুতগতির মোটরসাইকেলের ধাক্কা লাগলে কলেজছাত্র দুই বন্ধু প্রাণ হারিয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালের জরুরি বিভাগের গেটসংলগ্ন রেনেটা অফিসের সামনে বান্দ সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

একই রাতে আরো তিন জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় এক বিএনপি নেতাসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। ময়মনসিংহে ৪৪তম বিসিএস পরীক্ষায় অংশ নেওয়া হলো না পিংকী রানী বর্মণের (২৫)।

বিজ্ঞাপন

গতকাল শুক্রবার সকালে বাবার সঙ্গে মোটরসাইকেলে করে পরীক্ষা কেন্দ্রে যাওয়ার পথে বাসচাপায় তিনি প্রাণ হারিয়েছেন। কালের কণ্ঠের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

বরিশালে নিহতরা হলেন নগরের বাজার রোড এলাকার উত্তম সাহার ছেলে সুদীপ্ত সাহা গোপাল (২৩) ও একই এলাকার ব্যবসায়ী দিলীপ সাহার ছেলে অন্তু সাহা হৃদয় (২২)। সুদীপ্ত সরকারি ব্রজমোহন কলেজের স্নাতক তৃতীয় বর্ষের ছাত্র আর অন্তু সৈয়দ হাতেম আলী কলেজের স্নাতক তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) লোকমান হোসেন জানান, অন্তুকে নিয়ে দ্রুতগতিতে মোটরসাইকেল চালিয়ে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে রূপাতলীর দিকে যাচ্ছিলেন সুদীপ্ত। একটি লাইট পোস্টের সঙ্গে মোটরসাইকেলটির ধাক্কা লাগলে সুদীপ্তর মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয়রা অন্তুকে শেবাচিম হাসপাতালে নিলে সেখানে অন্তুরও মৃত্যু হয়। মরদেহ দুটি রাতেই ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। দুমড়েমুচড়ে যাওয়া মোটরসাইকেলটি জব্দ করা হয়েছে।

বিসিএস পরীক্ষা দেওয়া হলো না

ময়মনসিংহ সদরের চুরখাই এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে দুর্ঘটনায় নিহত পিংকী রানী বর্মণ গাজীপুরের মির্জাপুর ইউনিয়নের তালতলী গ্রামের নারায়ণ চন্দ্র বর্মণের মেয়ে। পিংকীর বড় ভাই নিতাই চন্দ্র জানান, বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষার কেন্দ্র ময়মনসিংহের আনন্দ মোহন কলেজ হওয়ায় কিছুদিন আগে ভালুকার নানাবাড়িতে গিয়েছিলেন পিংকী। সেখান থেকে তাঁকে নিয়ে মোটরসাইকেলে করে কেন্দ্রের উদ্দেশে রওনা হন বাবা নারায়ণ। পথে একটি ট্রাক মোটরসাইকেলটিকে ওভারটেক করে সামনে গিয়ে হার্ড ব্রেক করে। এতে নারায়ণ নিয়ন্ত্রণ হারালে পিংকী মোটরসাইকেল থেকে পড়ে আঘাত পান। তখন পেছন থেকে একটি বাস তাঁকে চাপা দেয়।

ময়মনসিংহের কোতোয়ালি থানার ওসি শাহ কামাল আকন্দ বলেন, ছাত্রী নিহতের ঘটনায় আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। ট্রাকটি আটক করা গেলেও চালক পালিয়েছেন।

আরো দুজনের মৃত্যু

বরিশালের উজিরপুর উপজেলার ওটরা ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও যুগিরকান্দা দাখিল মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা আক্তার হোসেন (৪৫) ট্রাকচাপায় নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বরিশাল ক্যাডেট কলেজের সামনে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। বরিশালে বিএনপির সমাবেশ শেষে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরছিলেন আক্তার।

এয়ারপোর্ট থানার ওসি কমলেশ চন্দ্র হালদার জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য শেবাচিম হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ট্রাকটি আটক করা গেলেও চালক পালিয়েছেন।

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে মালবাহী পিকআপ একটি ট্রাককে ওভারটেক করতে গেলে ট্রাকের পেছনের অংশে ধাক্কা লেগে পিকআপের সামনের অংশ দুমড়েমুচড়ে যায়। এতে পিকআপে থাকা তিনজনের মধ্যে একজনের মৃত্যু হয় এবং দুজন আহত হন। বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় উপজেলার পোড়াবাড়িতে টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মো. শামীম (৩৫) উপজেলার দেউলাবাড়ি গ্রামের মজিবরের ছেলে। আহতরা হলেন পিকআপচালক গোপালপুর উপজেলার সুতি গ্রামের ছামাদ (২১) ও সহকারী একই উপজেলার শাপলাবাড়ী গ্রামের শিপন মিয়া (১৮)।

১৫ দিন ধুঁকে দিনমজুরের মৃত্যু

পাবনার ভাঙ্গুড়ার মল্লিকচক স্কুলের সামনে ১২ মে রাতে বেপরোয়া গতির মোটরসাইকেলের ধাক্কায় আহত হয়েছিলেন দিনমজুর মজিবর রহমান (৫০)। গত বৃহস্পতিবার রাতে নিজ বাড়িতে তাঁর মৃত্যু হয়েছে। তিনি উপজেলার মুণ্ডুতোষ ইউনিয়নের মল্লিকচক গ্রামের বাসিন্দা।

প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতের ছেলে ফিরোজ হোসেন জানান, উপজেলার ভেড়ামারা গ্রামের রনি (২০), আকাশ (২২) ও আমির হোসেন (৩৭) বেপরোয়া গতিতে মোটরসাইকেল চালিয়ে চাটমোহর থেকে ভাঙ্গুড়ার দিকে আসছিলেন। পথে মল্লিকচক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা মজিবর রহমানকে ধাক্কা দিয়ে উল্টে যায় মোটরসাইকেলটি। এলাকাবাসী মোটরসাইকেল আরোহীদের আটক করে ও মজিবরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায়। কিছুক্ষণ পর আরোহীরা মোটরসাইকেল রেখে পালিয়ে যান। পরে মজিবরকে পাবনা সদর হাসপাতালে এবং পরে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠান চিকিৎসকরা। কিন্তু টাকার অভাবে পরিবার মজিবরকে দুই দিন আগে হাসপাতাল থেকে বাড়িতে নিয়ে আসে।

মুণ্ডুতোষ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা মামুনুর রশীদ জানান, এ ঘটনায় সালিস ডাকা হলেও অভিযুক্ত মোটরসাইকেল আরোহীরা উপস্থিত হননি। তবে নিহত মজিবরের পরিবারের অভিযোগ না থাকায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে পরে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

ভাঙ্গুড়া থানার ওসি ফয়সাল বিন আহসান বলেন, বিষয়টি জেনেছি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



সাতদিনের সেরা