kalerkantho

সোমবার । ২৭ জুন ২০২২ । ১৩ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৬ জিলকদ ১৪৪৩

মুন্সীগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ ৫

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি   

২৪ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে




মুন্সীগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ ৫

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়েছে। এতে পাঁচজন গুলিবিদ্ধসহ আহত হয়েছে অন্তত ১০ জন।

গতকাল সোমবার সকাল ৬টার দিকে উপজেলার মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের মহেশপুর ও মাকহাটি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে গতকাল মেহেরপুরে মুজিবনগর সরকারি ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আশিকুজ্জামান ও ছাত্রলীগ নেতা রোমানুজ্জামানকে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। দারিয়াপুরে কলেজ চত্বরে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মুন্সীগঞ্জের সদর উপজেলার মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান রিপন পাটোয়ারী ও সাবেক চেয়ারম্যান মোহসিনা হক কল্পনার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। রিপন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং কল্পনা মহিলাবিষয়ক সম্পাদক। গতকাল ভোর থেকে ইউনিয়নের মহেশপুর ও মাকহাটি এলাকায় কয়েক দফা সংঘর্ষে লিপ্ত হয় উভয় পক্ষ। এ সময় ককটেল বিস্ফোরণ, গোলাগুলি ও ঘরবাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এতে পাঁচজন গুলিবিদ্ধসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। গুলিবিদ্ধরা হলো হানিফ মোল্লা (৩৮), কামাল (২৮), সাজেদা (৭৫), সেরাজল বেপারী (৬৫) ও জামাল হোসেন (১৬)। তাদের মধ্যে সেরাজল, হানিফ ও কামালকে গুরুতর অবস্থায় মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল থেকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, আগামী ২৬ মে মাকহাটি জিসি উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন। নির্বাচনে রিপন পাটোয়ারী গ্রুপের রাজারচর গ্রামের মুক্তার মণ্ডল সভাপতি প্রার্থী। মহসিনা হক কল্পনা গ্রুপের লোকজনও প্রার্থী হয়েছেন।

মহসিনা হক কল্পনা বলেন, ‘নির্বাচনে আমার লোকজন যাতে অংশগ্রহণ করতে না পারেন এবং তাঁদের গ্রাম থেকে বিতাড়িত করার  জন্য রিপন পাটোয়ারীর লোকজন মাকহাটি ও রাজারচর গ্রামে সোমবার ভোরে জড়ো হয়। এরপর ভোর ৫টার দিকে ফরহাদ খান, বিএনপি নেতা আতাউর রহমান মল্লিক, মুক্তার মণ্ডল,  জুয়েল, প্রিন্স ও আরিফের নেতৃত্বে মাকহাটি, পূর্ব মাকহাটি, মধ্য মাকহাটি ও মহেশপুর গ্রামে শত শত রাউন্ড গুলিবর্ষণ ও ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটিয়ে হামলা চালায়। তারা আট থেকে ১০টি বাড়িঘর ভাঙচুর করে। এ সময় আমার লোকজন গুলিবিদ্ধ হন। ’

রিপন পাটোয়ারী জানান, তাঁর লোকজন কোনো হামলা চালায়নি। কল্পনার লোকজন পূর্ব মাকহাটি, মুন্সীকান্দি, উত্তর বেহেরকান্দি ও নোয়াদ্দা গ্রামে হামলা চালিয়েছে। তারা উত্তর বেহেরকান্দি গ্রামের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার ডলির বাড়িঘরও ভাঙচুর করে।

মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার কালাম হোসেন বলেন, পাঁচজনের শরীরের বিভিন্ন অংশ গুলিবিদ্ধ হয়েছে। গুরুতর অবস্থায় তিনজনকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। বাকি দুজন হাসপাতালেই চিকিৎসা নিচ্ছে।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রাজীব খান বলেন, ‘আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হয়েছে বলে শুনেছি। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো কোনো পক্ষ থানায় অভিযোগ করেনি। ’

মেহেরপুরে মুজিবনগর সরকারি ডিগ্রি কলেজে প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের কোপে জখম ছাত্রলীগ নেতা আশিকুজ্জামান উপজেলার দারিয়াপুর গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দীকের ছেলে। রোমানুজ্জামান একই গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে। তাঁরা বর্তমানে মেহেরপুর সরকারি কলেজে চিকিৎসাধীন।

আশিকুজ্জামান জানান, দারিয়ারপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুব আলম রবির ছেলে ফয়সাল হোসেন নাফিস ও বহিরাগত হৃদয়ের নেতৃত্বে তাঁর সহযোগীরা হামলা চালিয়েছে।

তবে চেয়ারম্যান মাহবুব আলম রবি জানান, কলেজে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দারিয়াপুর গ্রামের ও আশরাফপুর গ্রামের ছাত্রদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। আমার ছেলেকে তারা এর সঙ্গে জড়িয়ে নোংরা রাজনীতি করতে চাচ্ছে।

মুজিবনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী রাসেল বলেন, ‘এ ধরনের ঘটনা শুনিনি। তবে খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ’

 

[প্রতিবেদন তৈরিতে তথ্য দিয়েছেন মুন্সীগঞ্জ ও মেহেরপুর প্রতিনিধি]

 



সাতদিনের সেরা