kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জুন ২০২২ । ১৪ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৭ জিলকদ ১৪৪৩

সবিশেষ

নিরাপত্তা উদ্বেগে পেছাল গগনযানের আকাশবিহার

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২২ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিরাপত্তা উদ্বেগে পেছাল গগনযানের আকাশবিহার

পিছিয়ে যাচ্ছে মহাকাশে ভারতীয় নভোচারী পাঠানোর কর্মসূচি। শুক্রবার ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো জানাল, নিরাপত্তাগত উদ্বেগের কারণে চলতি বছর ‘গগনযান-২০২২’ প্রকল্পের চূড়ান্ত ধাপ সম্পন্ন না-ও হতে পারে। ইসরোর চেয়ারম্যান এস সোমনাথ বলেছেন, ‘নিরাপত্তার কারণে প্রথমে আগামী সেপ্টেম্বর ও নভেম্বরে দুটি মনুষ্যবিহীন মহাকাশযানকে নিরাপদে পৃথিবীতে ফিরিয়ে আনার পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ’

মহাকাশবিজ্ঞানীদের মতে, কোনো নভোযান উেক্ষপণের চেয়ে নিরাপদে পৃথিবীতে ফিরিয়ে আনা অনেক বেশি কঠিন।

বিজ্ঞাপন

প্রচণ্ড বেগে পৃথিবীতে ফেরার সময় অতিশয় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে নভোযান। নাসার ‘কলাম্বিয়া’ মহাকাশযানটি পৃথিবীতে ফেরার পথেই বিধ্বস্ত হয়েছিল। তাপপ্রতিরোধী আবরণে সমস্যা হওয়ায় বায়ুমণ্ডলের সংস্পর্শে আসতেই জ্বলে গিয়েছিল যানটি। ওই মিশনে ছিলেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন নভোচারী কল্পনা চাওলা। নিজেদের অভিযাত্রী পাঠানোর ক্ষেত্রে এখন তাই সব ধরনের সাবধানতা অবলম্বন করেই এগোতে চাইছে ভারত। ২০১৮ সালের ১৫ আগস্ট স্বাধীনতা দিবস পালন কর্মসূচিতে ‘গগনযান-২০২২’ প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এরপর ইসরোর তৎকালীন চেয়ারম্যান কে সিভন জানিয়েছিলেন, ২০২২ সালে শ্রীহরিকোটার উেক্ষপণকেন্দ্র থেকে মহাকাশযানটি উেক্ষপণ করা হবে। তাতে থাকবেন তিনজন ভারতীয় মহাকাশচারী। উেক্ষপণের ১৬ মিনিটের মাথায় মহাকাশযানটি ভূপৃষ্ঠ থেকে ৩০০ থেকে ৪০০ কিলোমিটার দূরত্বে পৌঁছে পৃথিবীকে ঘিরে ঘুরতে শুরু করবে। গগনযানকে আকাশে ওঠাতে ব্যবহার করা হবে ভারতের নিজস্ব জিএসএলভি এমকে-থ্রি রকেট।

প্রকল্পটির অগ্রগতির খবর জানিয়ে ইসরো বলেছিল, রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের পর চতুর্থ দেশ হিসেবে ভারতের মহাকাশে নভোচারী পাঠানোর কর্মসূচি নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যেই শেষ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

পরিকল্পনা অনুযায়ী, পৃথিবীকে ঘিরে মহাকাশযানের যে মডিউলটি পাক খাবে, তাতে দুটি অংশ থাকবে। একটিতে মহাকাশচারীরা থাকবেন। সেটির নাম ক্রু মডিউল। এটি যুক্ত থাকবে সার্ভিস মডিউলের সঙ্গে। মহাকাশচারীরা মহাকাশে থাকবেন পাঁচ থেকে সাত দিন। এরপর আরব সাগরের উপকূলে কোনো জায়গায় তাঁদের নামিয়ে আনা হবে। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা



সাতদিনের সেরা