kalerkantho

সোমবার । ২৭ জুন ২০২২ । ১৩ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৬ জিলকদ ১৪৪৩

সবিশেষ

ডুবন্ত হরিণকে বাঁচাল হাতির উপস্থিত বুদ্ধি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৯ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ডুবন্ত হরিণকে বাঁচাল হাতির উপস্থিত বুদ্ধি

ডোবার পানিতে ডুবে মরতে বসা অ্যান্টিলোপকে (হরিণজাতীয় প্রাণী) বাঁচিয়ে দিল এক সতর্ক হাতি। বিচিত্র এই ঘটনা ঘটেছে গুয়াতেমালার রাজধানী গুয়াতেমালা সিটির লা অরোরা চিড়িয়াখানায়।

চিড়িয়াখানার দর্শনার্থী মারিয়া ডায়াজ শেয়ার করেছেন এই ঘটনার এক ভিডিও। নিমেষেই ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, হরিণটি পানিতে পড়ে ডোবার উপক্রম হলে এশীয় জাতের হাতিটি উচ্চ স্বরে ডাকতে থাকে।

বিজ্ঞাপন

পাশাপাশি সেটি বিপন্ন হরিণটির দিকে ইঙ্গিত করে তার শুঁড় দোলাতে থাকে। হাতিটির ডাক চিড়িয়াখানার কর্মীদের নজরে পড়ে। একজন কর্মী বিষয়টি বুঝতে পেরে পানিতে ঝাঁপ দিয়ে ভীত হরিণটিকে বাঁচান।

ভিডিওটিতে দেখা যায়, ডোবার পানির ওপর শুধু হরিণের শিং দেখা যাচ্ছে। ভেসে থাকার জন্য হিমশিম খাচ্ছিল নিরীহ প্রাণীটি। অন্যদিকে হাতিটি একবার তার শুঁড় হরিণটির দিকে নির্দেশ করছিল এবং পরক্ষণেই চিড়িয়াখানার কর্মীর দিকে ফিরছিল। কর্মীটি পানিতে লাফিয়ে পড়ার পরও হাতিটি অবিরত ডাকতে থাকে। শেষ পর্যন্ত চিড়িয়াখানার কর্মী হরিণটিকে ধরে উঁচু করে তোলেন এবং সেটি ডোবার কিনারে পা রেখে লাফিয়ে ওপরে উঠে যায়। ততক্ষণে চারপাশে সমবেত দর্শকরা এতে করতালি দিয়ে আনন্দ প্রকাশ করে। হরিণটি ধীরে ধীরে লাফিয়ে দূরে চলে যায়। স্থানীয় মিডিয়া জানিয়েছে, ঘটনার পর চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ হাতি ও হরিণ বাঁচানো কর্মীকে পুরস্কার দিয়েছে। ‘ট্রম্পিটা’ নামের হাতিকে দেওয়া হয় তরমুজ, গাজর ও চিনাবাদাম। আর চিড়িয়াখানার কর্মীকে দেওয়া হয় সার্টিফিকেট। হাতিরা অত্যন্ত সহানুভূতিশীল প্রাণী হিসেবে পরিচিত। এদের মধ্যে সূক্ষ্ম আবেগ দেখা যায়। সূত্র : এনডিটিভি



সাতদিনের সেরা