kalerkantho

সোমবার । ২৭ জুন ২০২২ । ১৩ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৬ জিলকদ ১৪৪৩

ট্রলারে উঠে প্রকাশ্যে আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে আহত

বরিশাল অফিস   

১৮ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ট্রলারে উঠে প্রকাশ্যে আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে আহত

বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জে ট্রলার থামিয়ে প্রকাশ্যে আওয়ামী লীগ নেতাকে এলোপাতাড়ি কোপাল একদল সন্ত্রাসী। হামলার শিকার ওই নেতা আহত অবস্থায় থানায় গেলেও পুলিশ মামলা নেয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে। এরপর তাঁকে চিকিৎসার জন্য মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে মেহেন্দীগঞ্জের পাতারহাট ট্রলারঘাটে এ ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন

হামলার শিকার ওই নেতার নাম সালাম দেওয়ান। তাঁর বাড়ি উপজেলার দড়িরচর খাজুরিয়া ইউনিয়নে। তিনি ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি। রাতুল নামের এক সন্ত্রাসীর নেতৃত্বে তাঁর ওপর হামলা চালানো হয়। রাতুল এলাকায় একটি কিশোর গ্যাংয়ের নেতা। তাঁর নেতৃত্বে এর আগেও সালামের ওপর হামলা চালানো হয়। রাতুলের বাড়ি মেহেন্দীগঞ্জ পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের চর হোগলা গ্রামে। তাঁর বাবার নাম জগলু চৌধুরী।

সালাম দেওয়ান জানান, রাতুল এলাকায় বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালায়। সে মেহেন্দীগঞ্জ পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর হোসেনের ক্যাডার। তার বিরুদ্ধে ১০টারও বেশি মাদক মামলা রয়েছে। বিষয়টি পুলিশ জানলেও তার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয় না। সালাম জানান, তিনি রাতুলের অপকর্মের বিরোধিতা করায় গত এপ্রিল মাসে তাঁর ওপর রাতুল বাহিনী হামলা চালায় ও তাঁকে কুপিয়ে আহত করে। এ ঘটনায় তিনি থানায় মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার চার্জশিট হলেও আসামিকে আটক করেনি পুলিশ। গতকাল দুপুরে ফের লোকজন নিয়ে সালামের ওপর হামলা চালায় রাতুল।

সালাম বলেন, ‘আমি ট্রলারে দুপুরে দড়িরচর খাজুরিয়া ইউনিয়ন থেকে পাতারহাট ঘাটে এলে রাতুলের নেতৃত্বে ১০-১২ জন সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্রসহ আমার ওপর হামলা চালায়। ট্রলারে থাকা কয়েকজন যাত্রী দায়ের কোপে আহত হয়েছেন। ’ সালামের অভিযোগ, কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর হোসেন এ ঘটনা ঘটিয়েছেন। হামলার ঘটনায় মামলা করার জন্য তিনি মেহেন্দীগঞ্জ থানায় গেলে থানা পুলিশ মামলা নেয়নি।

 

 



সাতদিনের সেরা