kalerkantho

বৃহস্পতিবার ।  ২৬ মে ২০২২ । ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৪ শাওয়াল ১৪৪

সবিশেষ

বিষাক্ত ‘ন্যানোপ্লাস্টিক’ এবার দুই মেরু অঞ্চলেও শনাক্ত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৩ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিষাক্ত ‘ন্যানোপ্লাস্টিক’ এবার দুই মেরু অঞ্চলেও শনাক্ত

পৃথিবীর দুই মেরু অঞ্চলে প্রথমবারের মতো শনাক্ত হয়েছে ‘ন্যানোপ্লাস্টিকদূষণ’। বিষয়টি এ ইঙ্গিতই দেয় যে অতি ক্ষুদ্র প্লাস্টিককণার দূষণ এখন পৃথিবীর সব জায়গায়ই বিস্তৃত। ৫০ বছর আগের বরফের স্তরের মধ্যেও টায়ারের গুঁড়াসহ প্লাস্টিকের কণা পাওয়া গেছে।

ন্যানোপ্লাস্টিক মাইক্রোপ্লাস্টিকের তুলনায়ও ছোট আর বেশি বিষাক্ত।

বিজ্ঞাপন

মাইক্রোপ্লাস্টিক আগেই সারা পৃথিবীতে ছড়িয়েছে। তবে এই দুই উপাদান মানবদেহের জন্য কতটা ক্ষতিকর তা এখনো অজানা।

গ্রিনল্যান্ডের আইসক্যাপের একটি গভীর অংশের নমুনা পর্যবেক্ষণ করে গবেষকরা দেখেছেন, প্রায় ৫০ বছর ধরেই সেখানকার প্রত্যন্ত অঞ্চল ন্যানোপ্লাস্টিক দ্বারা দূষিত হচ্ছে। গবেষকরা আশ্চর্য হন এটা দেখে যে এসব উপাদানের এক-চতুর্থাংশই গাড়ির টায়ার থেকে আসা। ন্যানোপার্টিকল খুব হালকা বলে তা এশিয়া ও উত্তর আমেরিকার শহরগুলো থেকে বাতাসে গ্রিনল্যান্ডে পৌঁছে থাকতে পারে। আর অ্যান্টার্কটিকার ম্যাকমার্ডো সাউন্ডেও বরফে পাওয়া ন্যানোপ্লাস্টিক সমুদ্রস্রোতে ভেসে সেখানে গিয়ে থাকতে পারে।   

নেদারল্যান্ডসের ইউত্রেখ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের দুসান মাতেরিচ এই গবেষণায় নেতৃত্ব দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আমরা পৃথিবীর দূরবর্তী কোণে, উত্তর ও দক্ষিণ মেরু—উভয় স্থানে ন্যানোপ্লাস্টিক শনাক্ত করেছি। এটি মাইক্রোপ্লাস্টিকের তুলনায় বেশি বিষাক্ত। কাজেই বিষয়টি খুব গুরুত্বপূর্ণ। ’ সূত্র : দ্য গার্ডিয়ান



সাতদিনের সেরা