kalerkantho

বুধবার । ১২ মাঘ ১৪২৮। ২৬ জানুয়ারি ২০২২। ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

চট্টগ্রামে এবার খালে পড়ে শিশু নিখোঁজ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

৮ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চট্টগ্রামে এবার খালে পড়ে শিশু নিখোঁজ

মোহাম্মদ কামাল

চট্টগ্রামে এবার খালে পড়ে এক শিশু নিখোঁজ হয়েছে। মোহাম্মদ কামাল নামের ১০ বছরের ওই শিশু সোমবার বিকেল ৪টায় ষোলশহর এলাকার চশমার খালে পড়ে যায়। ২৭ ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও গতকাল মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত শিশুটিকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

এ নিয়ে চলতি বছরে চট্টগ্রাম শহরে খালে ও নালায় পড়ে তিনজনের মৃত্যু ও দুজনের নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা ঘটল।

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ বলছে, শিশুটি সোমবার নিখোঁজ হলেও পরিবারের পক্ষ থেকে পুলিশ বা ফায়ার সার্ভিসকে জানানো হয়নি। গতকাল বিকেলে এক সাংবাদিকের মাধ্যমে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ওই খালে তল্লাশি চালিয়ে যাচ্ছেন।

চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, সোমবার বিকেলে শিশুটি খালে পড়ে যায় বলে গতকাল বিকেলে এক সাংবাদিকের কাছ থেকে জানতে পারেন তাঁরা। শিশুটিকে উদ্ধার করতে এরই মধ্যে তাঁদের দল ঘটনাস্থলে গিয়েছে। সেই সঙ্গে ডুবুরিদলও যোগ দিয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোমবার বিকেলে রাকিব ও কামাল নামের দুই শিশু ফুটপাত ধরে হাঁটছিল। এ সময় তারা দুজনেই খালে পড়ে যায়। খাল থেকে রাকিব উঠে আসতে পারলেও কামাল পারেনি।

নিখোঁজ কামালের বাবা মোহাম্মদ কাউছার বলেন, ‘শোনার পর নিজেরা খালে নেমে খুঁজেছি। টহল পুলিশকেও জানিয়েছি। কিন্তু তারা গুরুত্ব দেয়নি। ’

পাঁচলাইশ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সাদিকুর রহমান বলেন, ‘শিশু খালে পড়ে যাওয়ার বিষয়ে আমরাও কোনো খবর পাইনি। আমরা আমাদের একটি টিম ঘটনাস্থলে পাঠিয়েছি। ’

এর আগে গত ২৭ অক্টোবর চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী সেহেরীন মাহবুব সাদিয়া (১৯) আগ্রাবাদ এলাকায় উন্মুক্ত নালায় পড়ে নিখোঁজ হন। ছয় ঘণ্টা পর তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

গত ২৫ আগস্ট ভারি বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হলে মুরাদপুর এলাকায় নালায় পড়ে তলিয়ে যান সালেহ আহমদ নামের এক সবজি ব্যবসায়ী। তাঁর খোঁজ এখনো পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

 



সাতদিনের সেরা