kalerkantho

শুক্রবার । ৭ মাঘ ১৪২৮। ২১ জানুয়ারি ২০২২। ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

দুদকের মামলা

পুলিশ পরিদর্শকের স্ত্রীর চার বছরের কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পুলিশ পরিদর্শকের স্ত্রীর চার বছরের কারাদণ্ড

সম্পদের তথ্য গোপন ও জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুদকের করা মামলায় অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ পরিদর্শক মোস্তাফিজুর রহমানের স্ত্রী মাহমুদা খানম স্বপ্নার চার বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৯-এর বিচারক শেখ হাফিজুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

আসামি মাহমুদা খানম স্বপ্নার উপস্থিতিতে বিচারক রায় ঘোষণা করেন। রায়ে মাহমুদা খানম স্বপ্নাকে দুদক আইন ২০০৪-এর ২৬(২) ধারায় এক বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড, ২৭(১) ধারায় তিন বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং ২১ লাখ ৫৪ হাজার ২৩৫ টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

অসাধু উপায়ে অর্জিত ২১ লাখ ৫৪ হাজার ২৩৫ টাকা রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্তের নির্দেশ দেন আদালত। রায় শেষে সাজা পরোয়ানা দিয়ে স্বপ্নাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা গেছে, মাহমুদা খানম স্বপ্না একজন গৃহিণী। তাঁর স্বামী মোস্তাফিজুর রহমান পুলিশ পরিদর্শক ছিলেন। ২০১৫ সালের ১৪ মে মাহমুদা খানম দুদকে সম্পদের হিসাব বিবরণী দাখিল করেন। সেখানে তিনি ১৭ লাখ ৬২ হাজার ১৮৩ টাকার সম্পদ অর্জনের তথ্য গোপন করেন এবং এক কোটি ৭১ লাখ তিন হাজার ৪৫ টাকার সম্পদের মধ্যে ৪১ লাখ ৪১ হাজার ২৬৯ টাকার সম্পদ জ্ঞাত আয়বহির্ভূতভাবে অর্জন করেন।

দুদকের উপপরিচালক আবুবকর সিদ্দিক ২০১৬ সালের ২৯ জুন রমনা থানায় তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করেন। ২০১৭ সালের ৩১ জানুয়ারি দুদকের উপসহকারী পরিচালক নাজিম উদ্দিন তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।



সাতদিনের সেরা