kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২ ডিসেম্বর ২০২১। ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

দীপাবলির উৎসব বর্জনের ডাক পূজা উদযাপন পরিষদের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দীপাবলির উৎসব বর্জনের ডাক পূজা উদযাপন পরিষদের

দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনায় পুলিশ ও প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ। দুর্গাপূজা চলাকালে এবং পরে বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার বিচার বিভাগীয় তদন্ত ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিসহ আট দফা দাবি জানিয়ে শ্যামাপূজায় দীপাবলির উৎসব বর্জনের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার ঢাকেশ্বরী মন্দিরে পূজা উদযাপন পরিষদের সংবাদ সম্মেলনে পূজামণ্ডপে সাম্প্রদায়িক শক্তির হামলা, লুটপাট, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও হত্যার প্রতিবাদে মূল বক্তব্য উত্থাপন করেন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নির্মল কুমার চ্যাটার্জি। পরিষদের সভাপতি মিলন দত্তের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সাবেক সভাপতি কাজল দেবনাথ, উপদেষ্টা জয়ন্ত সেন, মহানগর কমিটির সভাপতি শৈলেন মজুমদার, সাধারণ সম্পাদক কিশোর মণ্ডলসহ অন্যরা।

পূজামণ্ডপে হামলা ঠেকাতে প্রশাসন ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী ব্যর্থ হয়েছে উল্লেখ করে আট দফা দাবি তুলে ধরা হয় সংবাদ সম্মেলনে। এ সময় জানানো হয়, সারা দেশে সহিংসতার প্রতিবাদে আগামী ৪ নভেম্বর শ্যামাপূজায় দীপাবলির উৎসব বর্জন করে সেদিন কালো কাপড়ে মুখ ঢেকে মন্দিরে নীরবতা পালন করা হবে।

লিখিত বক্তব্যে নির্মল কুমার চ্যাটার্জি বলেন, গত ১৩ অক্টোবর রাত ৩টা থেকে ৪টার মধ্যে কুমিল্লার নানুয়া দীঘিরপারের মণ্ডপ এলাকায় কিছু সময়ের জন্য বিদ্যুতের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। কী কারণে ওই সময় এমন হলো, তা তদন্তের আওতায় আনতে হবে। তিনি বলেন, হনুমান মূর্তির কোলের ওপর রাখা পবিত্র কোরআন শরিফটি কোতোয়ালি থানার ওসি আনওয়ারুল আজিম সরিয়ে নেওয়ার পরও কেন তা ভিডিও করার সুযোগ দিলেন, যা পরে ভাইরাল হয়েছে। এটা নিয়ে বড় প্রশ্ন উঠেছে। তাই সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রকৃত তথ্য উদঘাটনে বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিশন গঠন করতে হবে। পরিষদের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলনে আট দফা দাবিও তুলে ধরা হয়। এর মধ্যে রয়েছে, ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির, বাড়িঘর সরকারি খরচে পুনর্নির্মাণ, ব্যবসায়ীদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। নিহতদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ ও আহতদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে। নিহতদের পরিবারের সদস্যদের সরকারি চাকরিতে নিয়োগের ব্যবস্থা করতে হবে। দোষীদের বিচারের পদক্ষেপ নিয়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।



সাতদিনের সেরা