kalerkantho

রবিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৮ নভেম্বর ২০২১। ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

দ্য ইকোনমিস্টের প্রতিবেদন

নিরাপদ শহরের তালিকায় ঢাকা তলানিতে

অন্য সূচকের তুলনায় ডিজিটাল নিরাপত্তায় বেশি পিছিয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



নিরাপদ শহরের তালিকায় ঢাকা তলানিতে

বিশ্বে নিরাপদ শহরের তালিকায় রাজধানী ঢাকার অবস্থান তলানির দিকে। বিশ্বে ৬০টি শহরের বিভিন্ন দিক পর্যালোচনা করে সম্প্রতি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে দ্য ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট। তাদের তৈরি সূচক অনুযায়ী ৬০টি শহরের মধ্যে ঢাকার অবস্থান ৫৪তম। দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে ঢাকার নিচে রয়েছে শুধু পাকিস্তানের করাচি। ডিজিটাল নিরাপত্তা, স্বাস্থ্য নিরাপত্তা, অবকাঠামো, ব্যক্তিগত নিরাপত্তা ও পরিবেশগত নিরাপত্তা বিবেচনা করে এই সূচক নির্ধারণ করা হয়েছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা সূচকে ঢাকা পেয়েছে ৩৯ পয়েন্ট।

১০০ পয়েন্টের মধ্যে সব সূচকের গড় মিলিয়ে ঢাকা পেয়েছে ৪৮.৯০ পয়েন্ট। এর মধ্যে ঢাকা স্বাস্থ্য নিরাপত্তার সূচকে পেয়েছে ৫০.৯০, অবকাঠামোতে ৪৯.৬০, ব্যক্তিগত নিরাপত্তায় ৪৬.৬০ ও পরিবেশগত নিরাপত্তায় ৫৮.২০ পয়েন্ট। অন্য সূচকের তুলনায় ডিজিটাল নিরাপত্তায় ঢাকার সূচক সবচেয়ে কম। এতে পেয়েছে মাত্র ৩৯ পয়েন্ট। ডিজিটাল নিরাপত্তায় ৬০ দেশের মধ্যে ঢাকার অবস্থান ৫৬তম।

সবচেয়ে ভালো শহর হতে গেলে পেতে হতো কমপক্ষে ৭৫.১ পয়েন্ট। ৫০.১ থেকে ৭৫ পর্যন্ত পয়েন্ট পেলে ভালো শহর, ২৫.১ থেকে ৫০ পয়েন্ট পেলে মোটামুটি শহর এবং ২৫ পয়েন্টের নিচে পেলে নিরাপত্তার দিক থেকে একেবারেই খারাপ শহর হিসেবে ধরে নেওয়ার মান নির্ধারণ করা হয়। এর আগে ২০১৭ সালে প্রকাশিত নিরাপদ শহরের তালিকায় ঢাকার অবস্থান ছিল ৫৮তম। ২০১৯ সালের সূচকে অবস্থান দাঁড়ায় ৫৬তম। সেই দিক থেকে প্রতিবার ধারাবাহিকভাবে দুই ধাপ করে এগিয়েছে ঢাকা মহানগরী।

২০২১ সালের তালিকায় প্রথমবারের মতো নিরাপদ শহরের শীর্ষস্থানে জায়গা পেয়েছে ডেনমার্কের রাজধানী কোপেনহেগেন। শহরটি পেয়েছে ৮২.৪০ পয়েন্ট। শীর্ষ দশে থাকা বাকি শহরগুলো হলো—টরন্টো, সিঙ্গাপুর, সিডনি, টোকিও, আমস্টারডাম, ওয়েলিংটন, হংকং, মেলবোর্ন ও স্টকহোম।

এ ছাড়া নিউ ইয়র্ক ১১, লন্ডন ১৫, প্যারিস ২৩, সিউল ২৪, সাংহাই ৩০, আবুধাবি ৩১, দুবাই ৩৫, ইস্তাম্বুল ৩৭ ও রিয়াদ রয়েছে ৪৯তম অবস্থানে। আর তালিকার একেবারে তলানিতে ঠাঁই হয়েছে মিয়ানমারের বৃহত্তম শহর ইয়াঙ্গুনের। নিরাপদ নগর সূচকে নিচের দিকে থাকা বাকি শহরগুলোর মধ্যে কাসাব্লাংকা ৫৫, লাগোস ৫৬, কায়রো ৫৭, কারাকাস ৫৮ ও করাচি ৫৯তম স্থানে রয়েছে।

সব দিক মিলিয়ে কোপেনহেগেন নিরাপদ শহরের তালিকায় শীর্ষ অবস্থানে থাকলেও ডিজিটাল নিরাপত্তায় শীর্ষে রয়েছে সিডনি। আর স্বাস্থ্য নিরাপত্তায় টোকিও, অবকাঠামোতে হংকং, পরিবেশ নিরাপত্তায় ওয়েলিংটন শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে। যদিও ব্যক্তিগত নিরাপত্তায় কোপেনহেগেনই সবচেয়ে এগিয়ে। উল্টোদিকে ব্যক্তিগত নিরাপত্তায় সবার নিচে করাচির অবস্থান। আর সব সূচক মিলিয়ে তালিকায় সবার নিচে রয়েছে ইয়াঙ্গুন।

 



সাতদিনের সেরা