kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ কার্তিক ১৪২৮। ২৮ অক্টোবর ২০২১। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দোকানের বেশির ভাগ ওষুধই নকল!

বাবুবাজারের তিন প্রতিষ্ঠানে অভিযান, গ্রেপ্তার ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দোকানের বেশির ভাগ ওষুধই নকল!

দোকানে থরে থরে সাজানো বিভিন্ন ধরনের ওষুধ। দেশি-বিদেশি বিভিন্ন নামিদামি ব্র্যান্ডের ট্যাবলেট, ক্যাপসুল, মলম, স্প্রে সবই আছে। আছে জীবন রক্ষাকারী ওষুধ, জন্মনিরোধক আই-পিল, যৌন উত্তেজক ওষুধ, ভারতীয় মুভ, বেটনোভেট এন ক্রিম, ওমিপ্রাজল। তবে এগুলোর প্রায় সবই নকল। প্রকাশ্যেই বিক্রি করা হচ্ছে এসব নকল ওষুধ। রাজধানীর পুরান ঢাকার বাবুবাজার সুরেশ্বরী এলাকার তিনটি ওষুধের দোকান ও তাদের গুদামে মিলেছে বিপুল পরিমাণ নকল ওষুধ।

গতকাল শনিবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি) অভিযান চালিয়ে এসব নকল ওষুধ জব্দ করেছে। গ্রেপ্তার করেছে তিনজনকে। তাঁরা হলেন মেডিসিন ওয়ার্ল্ড ফার্মেসির ফয়সাল আহমেদ (৩২), লোকনাথ ড্রাগের সুমন চন্দ্র মল্লিক (২৭) ও রাফসান ফার্মেসির লিটন গাজী (৩২)। অভিযানে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

ডিবির কর্মকর্তারা সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, একটি চক্র কিছু ফার্মেসিতে নকল ওষুধ বিক্রি করে। অতিরিক্ত লাভের আশায় ফার্মেসি মালিকরাও এসব ওষুধ কিনছেন এবং বিক্রি করছেন।  অসুস্থ কোনো ব্যক্তি এসব নকল ওষুধ সেবনের পর সুস্থ হওয়া তো দূরে থাক উল্টো জীবনহানির বিপদে পড়েন।

ডিবির লালবাগ বিভাগের কোতোয়ালি জোনাল টিমের অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) সাইফুর রহমান আজাদ জানান, অভিযানে মেডিসিন ওয়ার্ল্ড ফার্মেসি থেকে জব্দ করা হয় নকল ৫০০টি হোয়াইফিল্ড মলম, ২৫০টি নিক্স রাবিং বাম, ৩৫০টি বেটনোভ্যাট-সি ক্রিম ও ৩০টি রিং গার্ড ক্রিম। লোকনাথ ড্রাগ থেকে জব্দ করা হয় এক হাজার প্রোটোবিট ক্যাপসুল, তিন হাজার ন্যাপ্রোক্সেন প্লাস ট্যাবলেট, চার শ সানাগ্রা ট্যাবলেট ও দেড় হাজার পেরিঅ্যাকটিন ট্যাবলেট। রাফসান ফার্মেসি থেকে জব্দ করা হয় নকল ১২০ পাতা জন্মনিরোধক আই-পিল, ৭৫টি পিলের খালি প্যাকেট, আট বাক্স সুপার গোল্ড কস্তুরি, ১১৫ বাক্স ইনো, ১১০টি টিউব মুভ, ৪২০ কৌটা গ্যাকেজিমা, ৩০০টি নকল ভিক্স কোল্ড প্লাস ও ২০ কৌটা ভ্যাপোরাব।

এডিসি সাইফুর রহমান আজাদ বলেন, ঔষধ প্রশাসনের কর্মকর্তা এ টি এম কিবরিয়া খান ও মওদুদ আহমেদ অভিযানে ছিলেন। নকল ওষুধ যাঁরা সরবরাহ করছেন তাঁদের গ্রেপ্তার করতে অভিযান চলছে।



সাতদিনের সেরা