kalerkantho

শনিবার । ৩১ আশ্বিন ১৪২৮। ১৬ অক্টোবর ২০২১। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দেরিতে হাসপাতালে নেওয়ায় নারীদের মৃত্যু বেশি

► ২৪ ঘণ্টায় ৫২ মৃত্যু ৩২ জনই নারী
► এখন আক্রান্তদের বেশির ভাগই গ্রামের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দেরিতে হাসপাতালে নেওয়ায় নারীদের মৃত্যু বেশি

দেশে করোনায় গত দুই সপ্তাহের হিসাবে পুরুষের চেয়ে নারীর মৃত্যু হয়েছে বেশি। গতকাল বুধবারের হিসাবে পুরুষের তুলনায় নারীর মৃত্যু প্রায় দেড় গুণ বেশি। শেষ ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেছে ৫২ জন। এর মধ্যে ৩২ জন নারী ও ২০ জন পুরুষ। আর গত ১৫ দিনের হিসাবে পুরুষ মারা গেছে ৫০১ জন এবং নারী মারা গেছে ৫০৮ জন। আর করোনা সংক্রমণের শেষ দফায় ঊর্ধ্বমুখী পরিস্থিতির সময়ও আগের তুলনায় নারীদের মৃত্যু মাঝেমধ্যে বেড়ে যায়।

এর কারণ জানতে চাইলে আইইডিসিআরের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. এ এস এম আলমগীর কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘এর বৈজ্ঞানিক নতুন কোনো কারণ বলা মুশকিল। তবে সাধারণ পর্যবেক্ষণ থেকে বলা যায়, যেহেতু আমাদের দেশের নারীদের দেরিতে হাসপাতালের যাওয়ার বা নেওয়ার প্রবণতা রয়েছে, তাই করোনায়ও এর প্রভাব পড়েছে। অর্থাৎ পুরুষরা তুলনামূলক দ্রুত হাসপাতালে গেলেও, নারীদের অবস্থা জটিল হলেও তারা দ্রুত হাসপাতালে যেতে চান না। আবার পরিবারের পুরুষরাও নারীদের চিকিৎসার ক্ষেত্রে এক ধরনের শৈথিল্য দেখান। বিশেষ করে গ্রামে এই প্রবণতা এখনো প্রবল। আর যেহেতু এই দফায় গ্রামের মানুষ বেশি আক্রান্ত হয়েছে, ফলে নারীদের মৃত্যুও বেশি হচ্ছে।’

জনস্বাস্থ্যবিদ ডা. আবু জামিল ফয়সাল বলেন, করোনার সংক্রমণে নারী-পুরুষের মধ্যে আলাদা করার তেমন কিছু এখনো দেখা যায়নি। যদিও মাঝে একটি গবেষণায় নারীদের হরমোনাল বিষয়গুলো করোনা প্রতিরোধে পুরুষের তুলনায় কিছুটা এগিয়ে থাকার তথ্য জানানো হয়েছিল।

এদিকে গতকাল শনাক্ত হারও আগের তুলনায় আরো কিছুটা কমেছে। যদিও তা এখনো ৯ শতাংশের ঘরেই রয়ে গেছে। গতকাল শনাক্ত হার হয় ৯.০৭ শতাংশ। নতুন শনাক্ত হয়েছে দুই হাজার ৪৯৭ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ওই তথ্য অনুসারে এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত হয়েছে ১৫ লাখ ২২ হাজার ৩০২ জন। এর মধ্যে মারা গেছে ২৬ হাজার ৭৩৬ জন এবং সুস্থ হয়েছে ১৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৯৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে তিন হাজার ৮৪০ জন। মোট শনাক্ত হার ১৬.৬৪ শতাংশ, সুস্থতার হার ৯৬.২১ শতাংশ এবং মৃত্যু হার ১.৭৬ শতাংশ।

সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৫২ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ২০ জন, চট্টগ্রামে ২৫ জন, রাজশাহীতে একজন, খুলনায় ৯ জন, বরিশাল ও রংপুরে দুজন করে এবং সিলেটে তিনজন মারা গেছে। যাদের বয়স ২১-৩০ বছরের তিনজন, ৩১-৪০ বছরের তিনজন, ৪১-৫০ বছরের আটজন, ৫১-৬০ বছরের ১৪ জন, ৬১-৭০ বছরের ১৬ জন, ৭১-৮০ বছরের ছয়জন, ৮১-৯০ বছরের দুজন রয়েছে।

 



সাতদিনের সেরা