kalerkantho

শুক্রবার । ৭ মাঘ ১৪২৮। ২১ জানুয়ারি ২০২২। ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

সবিশেষ

‘টুইনডেমিক’ হতে পারে!

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘টুইনডেমিক’ হতে পারে!

প্রায় দুই বছরের মহামারি পর্বে নিজেকে বেশ কিছুটা গুটিয়ে রাখার পর আবার দাপটে ফিরতে চলেছে ইনফ্লুয়েঞ্জা বা ফ্লু ভাইরাস। সেই সময়ও খুব দূরে নেই। সেপ্টেম্বরের শেষের দিক থেকে শুরু করে ফ্লু ভাইরাসের দাপট চলবে শীতকাল শেষ না হওয়া পর্যন্ত। ওই সময়টা আক্ষরিক অর্থেই হয়ে উঠবে ‘ফ্লু  মৌসুম’।

বিজ্ঞাপন

শুরু হবে আরো একটি নতুন পর্বের, যার নাম ‘টুইনডেমিক’। একই সঙ্গে করোনাভাইরাস ও ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের মহামারি। এককভাবে যুক্তরাষ্ট্রের পিটাসবার্গ বিশ্ববিদ্যালয় ও হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌথভাবে করা দুটি গবেষণা এই উদ্বেগজনক খবর দিয়েছে।

একটি গবেষণায় অশনিসংকেত—মহামারির আগে বিশ্বে প্রতিবছর গড়ে যে সংখ্যায় ইনফ্লুয়েঞ্জায় আক্রান্ত রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করাতে হতো, আসন্ন ফ্লু মৌসুমে (২০২১-২২) সেই সংখ্যা কম করে হলেও এক লাখ থেকে চার লাখ বাড়তে চলেছে। দুটি গবেষণাপত্রই ‘পিয়ার রিভিউ’ পর্যায় পেরিয়ে একটি আন্তর্জাতিক চিকিৎসা গবেষণা পত্রিকায় প্রকাশিত হতে চলেছে। এখন সেই গবেষণাপত্রগুলো পাওয়া যাচ্ছে অনলাইনে।

তবে শুধুই উদ্বেগের ছবি আঁকেনি ওই দুটি গবেষণা। আসন্ন বিপদ থেকে বেরিয়ে আসারও পথ দেখিয়েছে। জানিয়েছে, এখন যে হারে গোটা বিশ্বে ইনফ্লুয়েঞ্জার টিকা দেওয়া হচ্ছে, তা আরো ২০ থেকে ৫০ শতাংশ বাড়াতে হবে। সেটা সম্ভব হলে আসন্ন বিপদ হয়তো কিছুটা সামাল দেওয়া যাবে। পিটাসবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের পাবলিক হেলথ ডাইনামিকস ল্যাবরেটরির কর্মকর্তা মার্ক রবার্টস বলেছেন, ‘আরো বেশি টিকাদানই আসন্ন ফ্লু মৌসুমের বিপদ সামলে ওঠার একমাত্র উপায় হয়ে উঠতে পারে। মনে রাখতে হবে, কভিড টিকা দেওয়া নিয়ে এখন আমরা ব্যস্ত থাকায় পর্যাপ্ত পরিমাণে ইনফ্লুয়েঞ্জার টিকা দেওয়াতে পারছি না। ’ রবার্টস



সাতদিনের সেরা