kalerkantho

মঙ্গলবার । ১০ কার্তিক ১৪২৮। ২৬ অক্টোবর ২০২১। ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সিআইডির এএসপিসহ গ্রেপ্তার পাঁচজনের মামলা ডিবিতে

দিনাজপুর প্রতিনিধি   

২৭ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে




সিআইডির এএসপিসহ গ্রেপ্তার পাঁচজনের মামলা ডিবিতে

দিনাজপুরে মা ও ছেলেকে অপহরণের পর মুক্তিপণ দাবির ঘটনায় রংপুর সিআইডির এএসপি সারোয়ার কবিরসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলার তদন্তভার দিনাজপুর গোয়েন্দা বিভাগে (ডিবি) ন্যস্ত করা হয়েছে। গত বুধবার চিরিরবন্দর থানায় মামলা হওয়ার পর রাতেই এর তদন্তভার ডিবিতে হস্তান্তরের সিদ্ধান্ত হয়।

দিনাজপুর ডিবির ওসি মোস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ডিবি আনুষ্ঠানিকভাবে মামলা হাতে পেলে গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতে হাজির করে রিমান্ডের আবেদন জানাবে বলে জানা গেছে।

গত মঙ্গলবার দিনাজপুর সদর উপজেলার দশ মাইল মোড় থেকে অপহরণের শিকার জহুরা বেগম, তাঁর ছেলে জাহাঙ্গীর আলমসহ রংপুর সিআইডির এএসপি সারোয়ার কবির, এএসআই হাসিনুর রহমান ও কনস্টেবল আহসানুল হক, গাড়িচালক হাবিবুর রহমান ও সোর্স ফসিউল পলাশকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

জানা গেছে, সোর্স ফসিউল পলাশ চলতি মাসের প্রথম দিকে চিরিরবন্দর উপজেলার আব্দুলপুর ইউনিয়নের নান্দেরাই সোলেমান শাহ পাড়া গ্রামের লুত্ফর রহমানের বিরুদ্ধে রংপুর সিআইডি কার্যালয়ে ৫০ লাখ টাকা প্রতারণার একটি অভিযোগ দায়ের করেন। পরে ২৩ আগস্ট রাত সাড়ে ৯টায় সিআইডির এএসপি সারোয়ার কবিরের নেতৃত্বে একটি টিম চিরিরবন্দর উপজেলার লুত্ফর রহমানের বাড়িতে অভিযান চালায়। তারা লুত্ফর রহমানকে না পেয়ে তাঁর স্ত্রী জহুরা বেগম ও ছেলে জাহাঙ্গীর আলমকে তুলে নিয়ে যায়। পরে তাঁদের মুক্তির বিনিময়ে অর্থ চাওয়া হয়। গত মঙ্গলবার বিকেলে সেই টাকা আনতে গিয়ে জনতার হাতে আটক হন ওই পাঁচজন। পরে পুলিশ তাঁদের গ্রেপ্তার করে। এ ঘটনায় লুত্ফর রহমানের বড় ভাই খলিলুর রহমান বাদী হয়ে চিরিরবন্দর থানায় অপহরণ ও মুক্তিপণ চাওয়ার অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে গত বুধবার বিকেলে তাঁদের কোর্টে নেওয়া হলে বিচারক জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

 



সাতদিনের সেরা