kalerkantho

রবিবার । ৪ আশ্বিন ১৪২৮। ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১১ সফর ১৪৪৩

বাইক আরোহীকে পাঁচ কিলোমিটার টেনে নিল ট্রাক

চাঁদপুর প্রতিনিধি   

৩০ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বাইক আরোহীকে পাঁচ কিলোমিটার টেনে নিল ট্রাক

এক মোটরসাইকেল আরোহী ট্রাকের চাপায় পিষ্ট হওয়ার পর ট্রাকটির নিচে আটকে যান। এ অবস্থায়ই তাঁকে টেনে নিয়ে যাচ্ছিল ট্রাকটি। তাঁর মরদেহটি চলন্ত ট্রাকের নিচে যখন এক ব্যক্তির চোখে পড়ে, ততক্ষণে ট্রাকটি অতিক্রম করেছে দীর্ঘ পাঁচ কিলোমিটার পথ। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে চাঁদপুর সদর উপজেলার চাঁদখার দোকান এলাকায় চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত নাসিরউদ্দিন মিজির (৪৫) বাড়ি চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার পূর্ব ধানুয়া গ্রামে। তিনি কুমিল্লা শহরের শাসনগাছা এলাকায় সপরিবারে বসবাস করতেন। সেখান থেকে গ্রামের বাড়ি ফেরার পথে দুর্ঘটনায় পড়েন তিনি।

চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কে চাঁদখার দোকান থেকে মহামায়া বাজারের দূরত্ব প্রায় পাঁচ কিলোমিটার। গতকাল ভোর সাড়ে ৫টা-পৌনে ৬টার দিকে কখনো হালকা, কখনো ভারি বৃষ্টি হচ্ছিল।

এই পাঁচ কিলোমিটারজুড়ে চলন্ত ট্রাকের নিচে আটকে ছিলেন মোটরসাইকেল আরোহী।

নাসিরউদ্দিন মিজি শাসনগাছার বাসা থেকে মোটরসাইকেল নিয়ে চাঁদখার দোকানের কাছে পৌঁছলে বিপরীত দিকের একটি দ্রুতগামী ট্রাক (যশোর-ট-১১-৪৩৮০) তাঁকে ধাক্কা দিয়ে নিচে ফেলে দেয়। ট্রাকের নিচে আটকে যান নাসির। এরপর ট্রাকটি পাঁচ কিলোমিটার পথ মহামায়া বাজার পর্যন্ত টেনে নিয়ে যায় তাঁকে। মিঠু নামের একজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ‘পাশের মিয়ারবাজার এলাকায় সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে ছিলাম। হঠাৎ দেখি, ধীরগতিতে চলা ট্রাকের নিচে কিছু একটা ঝুলছে। এ সময় কয়েকজন সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালককে ট্রাকটি অনুসরণ করতে বলি। এক পর্যায়ে মহামায়া বাজারে সড়কে ব্যারিকেড দিয়ে ট্রাকটি আটকে ফেলা হয়। তখনই চোখে পড়ে ক্ষতবিক্ষত এক ব্যক্তির মরদেহ। পুলিশকে জানানো হয়। পরে চাঁদপুর সদর মডেল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ট্রাকটিসহ চালককে আটক করে।’

নাসিরউদ্দিন মিজির স্ত্রী সানজিদা আক্তার বলেন, খুব ভোরে ফজরের নামাজ পড়ে তাঁর স্বামী কুমিল্লা থেকে গ্রামের বাড়ি ফরিদগঞ্জের ধানুয়ার উদ্দেশে বের হন। এর তিন ঘণ্টা পর তিনি স্বামীর মৃত্যুর খবর পান। তাঁদের দুটি শিশুসন্তান রয়েছে। দুর্ঘটনায় চালককে দায়ী না করে নিয়তির ওপর ছেড়ে দিয়ে বিনা ময়নাতদন্তে স্বামীর মরদেহ নিয়ে যান তিনি। আর ট্রাকচালক গোলাম মোস্তফা ডাবলু দাবি করেছেন, দুর্ঘটনা এবং ট্রাকের নিচে কেউ আটকে ছিলেন কি না, এ বিষয়ে তিনি কিছুই জানতেন না।

চাঁদপুর সদর মডেল থানার ওসি আব্দুর রশিদ জানান, পেশায় ঠিকাদার নাসিরউদ্দিন মিজি বিশেষ কাজে তাঁর মোটরসাইকেল নিয়ে বাড়ি যাচ্ছিলেন।

ট্রাকটির চালক গোলাম মোস্তফা ডাবলুকে আটক এবং ট্রাকটি জব্দ করেছে পুলিশ। ডাবলুর বিরুদ্ধে পুলিশ সড়ক দুর্ঘটনা আইনে মামলা করেছে। পরে তাঁকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।