kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ আশ্বিন ১৪২৮। ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৩ সফর ১৪৪৩

সবিশেষ

সচেতনতা বাড়াতে ২০০ মাইলের পদযাত্রা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৭ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সচেতনতা বাড়াতে ২০০ মাইলের পদযাত্রা

জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে জনসচেতনতা বাড়াতে চায় যুক্তরাজ্যের ইয়র্কশায়ারের ১১ বছরের বালক জুড। এই লক্ষ্যে নিজ বাড়ি থেকে হেঁটে ২০০ মাইল পথ পাড়ি দেবে সে। জুড জানিয়েছে, পদযাত্রায় লন্ডনে পৌঁছে কার্বন নিঃসরণের ওপর করারোপের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে সে মন্ত্রীদের সঙ্গে আলাপ করতে চায়।

‘কার্বন নিঃসরণ শূন্যে নামিয়ে আনা’ বিষয়ক প্রচার সংগঠন গত ফেব্রুয়ারিতে কার্বন কর নিয়ে পার্লামেন্ট বিতর্কের আহ্বান জানিয়ে পিটিশন দাখিল করেছে। ব্রিটিশ সরকার বলছে, ২০৩৫ সালের মধ্যে কার্বন নিঃসরণ ৭৮ শতাংশ কমাতে তারা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। বিবিসির এক খবরে বলা হয়, ‘ডায়ার প্রেডিকশন’

শীর্ষক একটি বই পড়ে এই পদযাত্রায় উদ্বুদ্ধ হয় জুড। জুড জানায়, বইটিতে কার্বন করসহ জলবায়ু পরিবর্তনের সমাধান করার নানা উপায় বাতলে দেওয়া আছে। বইটির পর জুড ওই পিটিশনও পড়েছে। জুডের বক্তব্য হলো, ‘আমি চাই পিটিশনে এক লাখ মানুষ সই করুক। এতে জীবাশ্ম ও নবায়ন-অযোগ্য জ্বালানি ব্যবহারে বেশি খরচ পড়ার বিষয়টি ব্যবসায়ীদের মাথায় আসবে এবং তারা তখন এর পরিবর্তে সবুজ ও বিকল্প জ্বালানি ব্যবহারের কথা চিন্তা করবে।’

পরিবেশের সঙ্গে করের সংযোগ এবং বিশেষত কার্বন করের উপকারিতার বিষয়টি খতিয়ে দেখছে সরকার। বালক জুড হেঁটে রাজধানী লন্ডন যাওয়ার বুদ্ধি পেয়েছে তার চাচার এক বন্ধুর কাছ থেকে, যিনি জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে সচেতনতা বাড়াতে গোটা বিশ্বে সাইকেল চালিয়েছেন। জুড বলেন, ‘শরণার্থীদের জন্য সচেতনতা তৈরি করতে সিসিলি থেকে ইংল্যান্ডে সাইকেল চালিয়ে আসা ছেলেটার ব্যাপারেও পড়েছি আমি।’

২১ দিন ধরে প্রতিদিন ১০ মাইল হাঁটার পরিকল্পনা রয়েছে জুডের। তার মতো অন্য শিশুরাও এতে উৎসাহ পাবে বলে মনে করে এই বালক। জুডের মা সারাহ বলেন, তাঁদের একটি ক্যাম্পারভ্যান ধার দেওয়া হয়েছে এবং তিনি এ যাত্রায় লোকজনের সঙ্গে থাকছেন। ছেলের বিষয়ে সারাহ বলেন, ‘তার মানসিকতা অনেক দৃঢ়।’ সূত্র : বিবিসি।



সাতদিনের সেরা