kalerkantho

শুক্রবার । ৯ আশ্বিন ১৪২৮। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৬ সফর ১৪৪৩

নিহতদের স্মরণ

সন্ত্রাস মোকাবেলায় সম্মিলিত প্রচেষ্টায় দূতদের অঙ্গীকার

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

২ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সন্ত্রাস মোকাবেলায় সম্মিলিত প্রচেষ্টায় দূতদের অঙ্গীকার

গুলশানে হলি আর্টিজানে সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে গতকাল সকালে ঘটনাস্থলে যান বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতরা। ছবি : কালের কণ্ঠ

হলি আর্টিজান সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে সন্ত্রাস মোকাবেলায় সম্মিলিত প্রচেষ্টায় অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর এক বিবৃতিতে ওই অঙ্গীকারের কথা জানায়। ওই বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশ সন্ত্রাসের নিন্দায় এবং ভবিষ্যতে হামলা ঠেকাতে অঙ্গীকারবদ্ধ। ওই হামলার জন্য দায়ীদের বিচারের আওতায় আনতে আমরা বাংলাদেশের প্রচেষ্টার প্রশংসা করছি এবং ভবিষ্যতে হামলা ঠেকাতে আমাদের জোরালো সন্ত্রাসবিরোধী অংশীদারির প্রতি অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করছি।’

এদিকে ঢাকায়ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে অঙ্গীকারের কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ও ইতালির দূতরা। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে তাঁরা ঢাকার গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারির সন্ত্রাসী হামলাস্থলে গিয়ে শ্রদ্ধা জানান। ওই হামলায় বাংলাদেশি ছাড়াও ইতালির ৯ জন, জাপানের সাতজন ও ভারতের একজন নিহত হন।

ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস তাদের ফেসবুক পেজে প্রকাশিত বার্তায় বলেছে, যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মিলার জাপানের রাষ্ট্রদূত নাওকি ইতো, ইতালির রাষ্ট্রদূত অ্যানরিকো নুনজিয়াটা ও ভারতের হাইকমিশনার বিক্রম কে দোরাইস্বামীর সঙ্গে মিলে ২০১৬ সালের ১ জুলাই হলি আর্টিজান বেকারি হামলার পঞ্চম বার্ষিকীর স্মরণে এবং এই  মর্মান্তিক ঘটনায় নিহতদের প্রতি সম্মান জানিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের বার্তায় বলা হয়েছে, ‘আমরা স্মরণ করছি অবিন্তা কবীরকে, যিনি ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের দ্বৈত নাগরিক এবং এমোরি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। আরো স্মরণ করছি তাঁর সহপাঠী ফারাজ হোসেনকে, যিনি নিরাপদে চলে যাওয়ার সুযোগ পাওয়া সত্ত্বেও তাঁর বন্ধুদের সঙ্গে থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। আমরা আরো স্মরণ করছি, বার্কলির দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ও ঢাকার আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের সাবেক শিক্ষার্থী তারিশি জৈনকে, যিনি গ্রীষ্মকালীন ইন্টার্নশিপের জন্য ফিরে এসেছিলেন। গভীর শ্রদ্ধাভরে আমরা স্মরণ করছি চূড়ান্ত ত্যাগ স্বীকারকারী দুই পুলিশ কর্মকর্তা ও আহত ২৫ কর্মকর্তার সাহসিকতাকে। শোকাবহ এই বার্ষিকী অনুষ্ঠানে আমরা সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলায় আমাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টার প্রতি অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করছি।’ এদিকে ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশন এক ফেসবুক বার্তায় বলেছে, হলি আর্টিজান বেকারিতে নিহতদের প্রতি ভারতের পক্ষে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী। পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেনসহ অন্য রাষ্ট্রদূতরাও এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন। ‘ঘৃণা কখনোই জিততে পারে না’—সেখানে এই বার্তাই পুনর্ব্যক্ত করেছেন ভারতীয় হাইকমিশনার।

 



সাতদিনের সেরা