kalerkantho

বুধবার । ২০ শ্রাবণ ১৪২৮। ৪ আগস্ট ২০২১। ২৪ জিলহজ ১৪৪২

কুমিল্লায় নকল বিটুমিন কারখানা সিলগালা

বিপুল পরিমাণ চোরাই তেল ও পোড়া মবিল জব্দ, দুজনকে কারাদণ্ড, মালিক পলাতক

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

১৭ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে




কুমিল্লায় নকল বিটুমিন কারখানা সিলগালা

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে নিম্নমানের বিটুমিন তৈরির একটি কারখানায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ চোরাই তেল ও পোড়া মবিল জব্দ করেছে র‌্যাব। এ ঘটনায় আব্দুল মান্নান ও ফোরকান নামের দুজনকে আটক এবং কারখানাটি সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে। তবে কারখানার মালিক আব্দুল হান্নান পলাতক রয়েছেন।

অভিযান সূত্রে জানা গেছে, র‌্যাব গত মঙ্গলবার চৌদ্দগ্রামের রাজেন্দ্রপুর এলাকায় অবস্থিত ‘মেসার্স আলম অ্যান্ড কম্পানি’ নামের ওই কারখানায় অভিযান চালায়। কারখানাটিতে ভেজাল জ্বালানি তেলও তৈরি করা হতো বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

আটক আব্দুল মান্নান উপজেলার গুণবতী ইউনিয়নের গুণবতী গ্রামের আলম মিয়ার ছেলে এবং ফোরকান নাঙ্গলকোট উপজেলার সাতবাড়িয়া ইউনিয়নের তপবন গ্রামের মো. মোস্তফার ছেলে। অভিযানে ভ্রাম্যমাণ আদালত আব্দুল মান্নানকে এক বছর এবং ফোরকান মিয়াকে ছয় মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেন।

র‌্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার বিকেলে কুমিল্লা র‌্যাব-১১ সিপিসি-২-এর উপপরিচালক ও কম্পানি অধিনায়ক মেজর তালুকদার নাজমুছ সাকিবের নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি টিম এ অভিযানে নামে। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কসংলগ্ন চৌদ্দগ্রামের ঘোলপাশা ইউনিয়নের রাজেন্দ্রপুর এলাকায় অবস্থিত ওই কারখানায় অভিযানে দুটি তেলবাহী ট্রাক ও একটি ডিজেলভর্তি পিকআপসহ বিপুল পরিমাণ চোরাই তেল ও পোড়া মবিল জব্দ করা হয়। এ ঘটনায় কারখানায় কর্মরত আব্দুল মান্নান ও ফোরকান নামের দুজনকে আটক করে র‌্যাব।

অভিযান ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আব্দুল হান্নান আবাসিক এলাকায় এই কারখানা স্থাপন করে দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ উপায়ে পোড়া মবিলকে এসিডের মাধ্যমে প্রক্রিয়াজাত করে নিম্নমানের বিটুমিন ও জ্বালানি তেল তৈরি করে আসছিলেন। এ ছাড়া মহাসড়কে চলমান লরি, কনটেইনারসহ বিভিন্ন যানবাহনের চালকদের সঙ্গে গোপন চুক্তির মাধ্যমে কম দামে চোরাই জ্বালানি তেল কিনে গুদামজাত করে বিভিন্ন খুচরা বিক্রেতার কাছে বেশি মুনাফায় বিক্রি করে আসছিলেন তিনি।

স্থানীয়রা জানায়, প্রভাবশালীদের ম্যানেজ করেই চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ কারখানা চালিয়ে আসছিল। ফলে তাদের কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে কেউ এত দিন মুখ খুলতে সাহস পায়নি। র‌্যাবের অভিযানের পর মুখ খুলতে শুরু করেছে এলাকাবাসী। তারা এই অভিযানকে সাধুবাদ জানিয়েছে।

এ বিষয়ে কুমিল্লা র‌্যাব-১১ সিপিসি-২-এর উপপরিচালক ও কম্পানি অধিনায়ক মেজর তালুকদার নাজমুছ সাকিব বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের রাজেন্দ্রপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে নকল জ্বালানি তেল ও নিম্নমানের বিটুমিন তৈরির কারখানা সিলগালা করা হয়। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, এখানে পরিবেশগত ঝুঁকির মধ্য দিয়ে পোড়া মবিলকে এসিডের মাধ্যমে প্রক্রিয়াজাত করে জ্বালানি তেল ও নিম্নমানের বিটুমিন তৈরি করে আসছিল একটি অসাধুচক্র। এ ঘটনায় দুজনকে আটক করা হয়। কারখানার মালিক আব্দুল হান্নান পলাতক রয়েছেন।’



সাতদিনের সেরা