kalerkantho

শনিবার । ৯ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৪ জুলাই ২০২১। ১৩ জিলহজ ১৪৪২

অবৈধ অভিবাসনে ফের আলোচনায় বাংলাদেশ

ভূমধ্যসাগরে ১৬৪ ‘বাংলাদেশি’ উদ্ধার

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

১৪ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে




অবৈধ অভিবাসনে ফের আলোচনায় বাংলাদেশ

অবৈধভাবে ইউরোপে যাওয়ার সময় আবারও ধরা পড়ে গণমাধ্যমে শিরোনাম হয়েছেন বাংলাদেশিরা। লিবিয়ার কোস্ট গার্ড ভূমধ্যসাগর থেকে ১৬৪ জন বাংলাদেশিসহ ৪৩৯ জন অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করেছে। লিবিয়া অবজারভার এক প্রতিবেদনে জানায়, লিবিয়ার কোস্ট গার্ড গত বৃহস্পতিবার আলাদা দুটি উদ্ধার অভিযান চালিয়ে ওই অভিবাসনপ্রত্যাশীদের উদ্ধার করে। উদ্ধার হওয়া ব্যক্তিরা আফ্রিকা ও এশিয়ার বিভিন্ন দেশের। তাঁরা অবৈধভাবে সাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন।

লিবিয়ার নৌবাহিনীর চিফ অব স্টাফের এক মুখপাত্র বলেন, তাঁদের দুটি উদ্ধারকারী জাহাজ এই অভিযানে অংশ নেয়। রাবারের তৈরি ডিঙিতে ওই অভিবাসনপ্রত্যাশীরা ইউরোপের উপকূলের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন।

ওই মুখপাত্র আরো জানান, ভূমধ্যসাগর থেকে উদ্ধারের পর অভিবাসনপ্রত্যাশীদের লিবিয়ার ত্রিপোলির নৌঘাঁটিতে আনা হয়। পরে তাঁদের লিবিয়ার অবৈধ অভিবাসন প্রতিরোধবিষয়ক কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) হিসাব অনুযায়ী, চলতি বছরের ১২ জুন পর্যন্ত ভূমধ্যসাগরে ৮১৩ জন অভিবাসনপ্রত্যাশীর মৃত্যু হয়েছে। এদিকে লিবিয়া অবজারভার জানায়, চলতি বছর দেশটির কোস্ট গার্ড সমুদ্র থেকে ৯ হাজারের বেশি অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করেছে বলে সম্প্রতি লিবিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন। এই অভিবাসনপ্রত্যাশীরা ইউরোপে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন। গত বছর সাত হাজারের বেশি অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করা হয়েছে। এদিকে দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপের দেশ উত্তর মেসিডোনিয়ার সার্বিয়া সীমান্ত থেকে গত শনিবার অনুপ্রবেশের দায়ে ২০ বাংলাদেশি অভিবাসনপ্রত্যাশীকে আটক করা হয়েছে। উত্তর মেসিডোনিয়ার পুলিশের বরাত দিয়ে গতকাল রবিবার দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট জানায়, গত শনিবার নিয়মিত টহল ও গাড়ি চেকিংয়ের সময় সার্বিয়ার সঙ্গে উত্তর মেসিডোনিয়ার সীমান্তে একটি মহাসড়কে একটি ভ্যানগাড়িতে ২০ বাংলাদেশিকে পাওয়া গেছে। এই সময় গাড়ির ৪৪ বছর বয়সী মেসিডোনিয়ান চালককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।