kalerkantho

সোমবার । ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৪ জুন ২০২১। ২ জিলকদ ১৪৪২

সবিশেষ

ব্যক্তিগত ক্ষতির কথা জানলে কমে টিকায় অনীহা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৭ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্যক্তিগত ক্ষতির কথা জানলে কমে টিকায় অনীহা

যত দ্রুত সম্ভব টিকা না নিলে ব্যক্তিগত ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা কতটা, কভিডসহ কী কী রোগ আরো ভয়াবহ হয়ে উঠতে পারে, এমনকি মৃত্যুর দিকেও ঠেলে দিতে পারে, তা বোঝাতে পারলে টিকা নেওয়ার ব্যাপারে জনসাধারণের ভয়ভীতি, অনাগ্রহ ও উদাসীনতা কমানো যায়—এমনটাই দেখা গেছে এক গবেষণায়।

কেউ টিকা না নিলে তার মাধ্যমে অন্যদের সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা বহুগুণ বেড়ে যায়। ফলে লকডাউন ঘোষণা করতে হয়। এর পরিণতিতে মানুষের রুটিরুজিতে টান পড়ে। এসব বোঝানো হলেও টিকা নেওয়ার ব্যাপারে আমজনতার উদাসীনতা ততটা কমানো যায় না, যতটা কমানো যায় ব্যক্তিগত ক্ষয়ক্ষতির কথা বললে। আন্তর্জাতিক চিকিৎসা বিষয়ক সাময়িকী ল্যানসেট পাবলিক হেলথে সম্প্রতি প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদনে এ তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।

শুধু কভিড নয়, যেকোনো রোগের টিকা নেওয়ার ক্ষেত্রে মানুষের ভয়ভীতি, অনাগ্রহ নতুন নয়। কভিডের টিকা নেওয়ার ক্ষেত্রেও সেটা দেখা যাচ্ছে। অথচ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সংক্রমণের দ্রুত লাগাম টানতে চাইলে যত দ্রুত সম্ভব সবার টিকা গ্রহণ নিশ্চিত করা উচিত।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডাব্লিউএইচও) পরিসংখ্যান জানাচ্ছে, গত ১ এপ্রিল পর্যন্ত আমেরিকায় যেখানে মোট জনসংখ্যার ৩০ শতাংশ এবং ব্রিটেনে মোট জনসংখ্যার দুই-তৃতীয়াংশকে টিকা দেওয়া সম্ভব হয়েছে, সেখানে ভারতে টিকা পেয়েছে মোট জনসংখ্যার মাত্র ১.৮ শতাংশ মানুষ। এর অবশ্য অনেক কারণ রয়েছে। এসব কারণের মধ্যে একটি হলো টিকা নেওয়ার ব্যাপারে সাধারণ মানুষের অনাগ্রহ। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।