kalerkantho

রবিবার । ৬ আষাঢ় ১৪২৮। ২০ জুন ২০২১। ৮ জিলকদ ১৪৪২

ঈদের দিনও ঝড়-বৃষ্টির আশঙ্কা

বজ্রাঘাতে ৬ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ঈদের দিনও ঝড়-বৃষ্টির আশঙ্কা

আগামী বৃহস্পতিবার অথবা শুক্রবার পালিত হতে পারে ঈদুল ফিতর। এই দুই দিনের যেদিনই ঈদ হোক না কেন, দুই দিনই বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। এমনকি বৃষ্টিপাতের সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়া, বজ্রপাত ও শিলাবৃষ্টিরও আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এদিকে গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকেই সারা দেশে বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে বজ্রাঘাতে পাঁচজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। রাজধানীতেও কয়েক দফায় ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে বৃষ্টিপাত হয়েছে। দুপুরের পর থেকেই রাজধানীর আকাশ কালো মেঘে ঢেকে যায়। বিকেল থেকে থেমে থেমে বৃষ্টিপাত শুরু হয়।

আবহাওয়াবিদ আবদুল মান্নান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘সারা দেশেই কমবেশি বৃষ্টিপাত হচ্ছে। আগামী শুক্রবার পর্যন্ত একই ধরনের বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। সেই হিসাবে ঈদের দিনও সারা দেশেই বৃষ্টি হতে পারে। এই সময়ে বাতাস থাকলেও প্রচণ্ড ঝড়ের আশঙ্কা কম। তবে বজ্রপাত থাকবে। কোথাও কোথাও শিলাবৃষ্টিও হতে পারে।’

গতকাল সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং চট্টগ্রাম, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা, ঝোড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে। সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা কিছুটা কমতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

গতকাল সকাল ৬টা পর্যন্ত শেষ ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে ময়মনসিংহে, ৭৫ মিলিমিটার। দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল রাজশাহীতে, ৩৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

গতকাল সকাল সাড়ে ৮টায় পাবনার সাঁথিয়ায় পৃথক দুটি স্থানে বজ্রাঘাতে ইমরান হোসেন (১৮) ও আরিফ (১৭) নামের দুজনের মৃত্যু হয়েছে। নাটোরের বড়াইগ্রামে বজ্রাঘাতে সবের আলী (৫১) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সকালে উপজেলার জোয়াড়ী ইউনিয়নের কেচুয়াকোড়া মাঠে ওই ঘটনা ঘটে। নওগাঁর ধামইরহাটেও বজ্রাঘাতে একজন কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। মাঠ থেকে গরু নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে কৃষক রেজাউল করিম ইজাবুল (৬৩) বজ পাতের শিকার হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে আম কুড়াতে গিয়ে বজ পাতে সালমা বেগম (২০) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে ঝড়ে উড়ে গেছে একাধিক ঘরের চাল। প্রবল বৃষ্টিপাতের ফলে গতকাল সিরাজগঞ্জের ঘোড়াচরায় ইটভাটার দেয়াল ধসে নিচে চাপা পড়ে এক ভাটা শ্রমিক নিহত এবং চারজন আহত হয়েছে।    

কালবৈশাখীর তাণ্ডবে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে নওগাঁর মান্দা উপজেলার মৈনম ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রাম। একই সঙ্গে শিলাবৃষ্টিতে বোরো ধানসহ মৌসুমি ফল ও ফসলের ব্যাপক ক্ষতিসাধন হয়েছে। গত সোমবার দিবাগত রাত ১টা ৪০ মিনিটের দিকে বয়ে যাওয়া কালবৈশাখীর এই তাণ্ডবে ভেঙে ও উপড়ে পড়েছে অসংখ্য গাছপালা। ঝড়ের তাণ্ডবে বিধ্বস্ত হয়েছে কাঁচা-পাকা বাড়ি, উড়ে গেছে টিনের ছাউনি। তার ছিঁড়ে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে পুরো এলাকা। গাছ পড়ে ও টিনের ছাউনি উড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দক্ষিণ মৈনম বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ।

এদিকে ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে বজ পাতে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল বিকেল ৪টার দিকে উপজেলার কুশনা গ্রামে।