kalerkantho

রবিবার । ২৬ বৈশাখ ১৪২৮। ৯ মে ২০২১। ২৬ রমজান ১৪৪২

রূপগঞ্জে ভুঁইফোড় আবাসন কম্পানির বিরুদ্ধে মানববন্ধন

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৪ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



রূপগঞ্জে ভুঁইফোড় আবাসন কম্পানির বিরুদ্ধে মানববন্ধন

অবৈধ আবাসন ওয়েলকেয়ার কম্পানির বিরুদ্ধে মানুষের ভিটাবাড়ি জোরপূর্বক দখলের প্রতিবাদে গতকাল রূপগঞ্জের কায়েতপাড়ায় বিক্ষোভ করে এলাকাবাসী। ছবি : কালের কণ্ঠ

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ভুঁইফোড় আবাসন কম্পানি ওয়েলকেয়ার কনসোর্টিয়াম লিমিটেডের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে স্থানীয়রা। গতকাল সোমবার বিকেলে উপজেলার ইছাখালী এলাকায় কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে এই কর্মসূচি পালন করা হয়।

স্থানীয়দের ভাষ্য, কায়েতপাড়া ইউনিয়নের মাঝিনা মৌজায় তিন-চার বিঘা জমি কিনে নিরীহ কৃষকদের প্রায় ৫০০ বিঘা জমি জবরদখল করেছে ওয়েলকেয়ার কনসোর্টিয়াম। এমনকি এসব জায়গায় সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে জোরপূর্বক বালু ভরাট শুরু করেছে ভুঁইফোড় আবাসন প্রতিষ্ঠানটি। তাতে এলাকাবাসী বাধা দিলে হামলা-মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। ওয়েলকেয়ারের চেয়ারম্যান বদিউজ্জামান মিঠু, পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান ও গফুর আজাদ এই জবরদখলের সঙ্গে জড়িত।

গতকালের প্রতিবাদী কর্মসূচিতে অংশ নেন বীর মুক্তিযোদ্ধা সামসুল আলম, অ্যাডভোকেট আব্দুল আউয়াল, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি হাফিজুর রহমান সজীব, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাসুম চৌধুরী অপু, স্থানীয় আলতাফ হোসেন, আলী আজগর, মোজাম্মেল হক মিলনসহ কায়েতপাড়ার সহস্রাধিক নারী-পুরুষ।

এই কর্মসূচি চলাকালে বক্তারা বলেন, যদি কৃষকদের নায্য মূল্য না দিয়ে জমি জবরদখল কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া যাওয়া হয়, তাহলে জমি দখলকারীদের সম্মিলিতভাবে প্রতিহত করবে এলাকাবাসী।

কায়েতপাড়া ইউনিয়নের স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মহিউদ্দিন মেম্বার বলেন, অবৈধ আবাসন কম্পানি ওয়েলকেয়ার সাধারণ মানুষের জমি না কিনেই ভিটেবাড়ি দখল করে সাইনবোর্ড লাগিয়ে দিয়েছে।

উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোজাম্মেল হক মিলন বলেন, ‘পুলিশ হাউজিং ও সেনাবাহিনীর আবাসন প্রকল্প জনগণের ন্যায্য পাওনা দিয়ে জমি কিনছে। তাদের প্রতি সাধারণ মানুষের কোনো ক্ষোভ নেই। ওয়েলকেয়ার একটি ভুঁইফোড় কম্পানি, তারা সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছে।’

কায়েতপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল আউয়াল বলেন, ওয়েলকেয়ার কম্পানি সাধারণ মানুষের দুই বিঘা জমিও কেনেনি। কিন্তু ভাড়া নেওয়া জমিতে সাইনবোর্ড লাগিয়ে কয়েক হাজার প্লট বিভিন্ন লোকের কাছে বিক্রি করছে তারা। এতে সাধারণ মানুষ প্রতারিত হচ্ছে। 

স্থানীয় রত্না আক্তার জানান, ওয়েলয়োরের প্রতারণার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলে তাদের নিয়োজিত সন্ত্রাসীরা সাধারণ মানুষের বাড়িতে হামলা ও মামলা দিয়ে হয়রানি করেন।

আরেক স্থানীয় কুলসুম আক্তারের কথায়, ‘ওয়েলকেয়ার আবাসন প্রকল্প রূপগঞ্জ থেকে প্রত্যাহার চাই। ওয়েলকেয়ার কম্পানির অত্যাচারে এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ। আমরা এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করছি।’

আওয়ামী লীগ নেতা আলাউদ্দিন মিয়া বলেন, ‘ওয়েলকেয়ার আবাসন প্রকল্পের কাছে সাধারণ মানুষ জিম্মি হয়ে পড়েছে। জমি না কিনেই তারা মানুষের জমিতে সাইনবোর্ড লাগিয়ে জোরপূর্বক দখল করেছে রেখেছে। ভুঁইফোড় কম্পানিটি ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষকে নিয়ে এসে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে কোটি কোটি হাতিয়ে নিচ্ছে।’

 



সাতদিনের সেরা