kalerkantho

বুধবার । ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৯ মে ২০২১। ৬ শাওয়াল ১৪৪

ডাব্লিউএইচওর ভাষ্য

কয়েক মাসের মধ্যে করোনা নিয়ন্ত্রণ সম্ভব

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২১ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কয়েক মাসের মধ্যে করোনা নিয়ন্ত্রণ সম্ভব

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডাব্লিউএইচও) মহাপরিচালক টেড্রোস আধানম গেব্রেয়েসুস বলেছেন, ঠিকমতো ব্যবস্থা নিতে পারলে ও প্রয়োজনীয় সামগ্রীর ন্যায্য বণ্টনের মাধ্যমে কয়েক মাসের মধ্যেই করোনা মহামারি নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব।

গত সোমবার জেনেভায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন। এ সময় তিনি বিশ্বজুড়ে ২৫ থেকে ৫৯ বছর বয়সীদের মধ্যে করোনা সংক্রমণ ছড়ানো নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। টেড্রোস আরো বলেন, ‘মহামারি শুরু হওয়ার পর প্রথম ৯ মাসে যেখানে প্রাণহানি হয় ১০ লাখ মানুষের; সেখানে পরবর্তী চার মাসেই তা ১০ লাখে পৌঁছায়। পরের তিন মাসে মৃত্যুসংখ্যা ৩০ লাখ পার হয়েছে। প্রাণহানির এই দ্রুততা ভয়াবহ। তবে এর মধ্যেও আশা রয়েছে। যদি আমরা ধারাবাহিক ও সমতার ভিত্তিতে কাজ করি তবে এই মহামারি কয়েক মাসের মধ্যেই নিয়ন্ত্রণের উপায় আছে।’

এই সংবাদ সম্মেলনে যোগ দেন সুইডিশ জলবায়ু অধিকারকর্মী গ্রেতা থুনবারি। তিনি ধনী দেশগুলোর টিকা মজুদকরণের তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, ‘ধনী দেশগুলো এখন তরুণদের টিকা দিচ্ছে, যেখানে দরিদ্র দেশগুলো উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা নাগরিকদেরও টিকা দিতে পারছে না। অথচ এই পরিস্থিতিতে ধনী কিংবা দরিদ্র যে দেশেরই বাসিন্দা হোক না কেন, যাদের স্বাস্থ্যঝুঁকি বেশি, তাদেরই টিকাদানে অগ্রাধিকার পাওয়ার কথা।’

থুনবারি বলেন, ‘এরই মধ্যে ধনী দেশগুলোতে এক-চতুর্থাংশ মানুষের টিকদান হয়ে গেছে। সেখানে দরিদ্র দেশগুলোতে প্রতি ৫০০ জনে মাত্র একজন টিকা পেয়েছে।’

ভারতে নতুন আক্রান্ত দুই লাখ ৬০ হাজার প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাসে এক দিনে দুই লাখ ৫৯ হাজার ১৭০ ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছে প্রতিবেশী ভারতে। তাতে করে দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা এক কোটি ৫৩ লাখ ২১ হাজার ৮৯-এ পৌঁছেছে। আর চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ২০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে।

গতকাল সকাল ৮টায় ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হালনাগাদ করা তথ্যে দেখা গেছে, সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড এক হাজার ৭৬১ জনের প্রাণহানি হয়েছে। তাতে করে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক লাখ ৮০ হাজার ৫৩০ জনে।

এদিকে ভারতের রাজধানী দিল্লি থেকে হংকংয়ে যাওয়া একটি ফ্লাইটের অন্তত ৪৯ যাত্রীর করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। নতুন করে সংক্রমণ বাড়তে থাকায় ভারত থেকে সব ফ্লাইটের ওপর জরুরি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে হংকং কর্তৃপক্ষ।



সাতদিনের সেরা