kalerkantho

মঙ্গলবার । ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৮ মে ২০২১। ৫ শাওয়াল ১৪৪

প্রকাশকদের হতাশা বাড়িয়ে শেষ

আজিজুল পারভেজ   

১৩ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রকাশকদের হতাশা বাড়িয়ে শেষ

করোনাকালীন নির্ধারিত সময়ের দুই দিন আগে একুশে বইমেলা শেষ হলো গতকাল সোমবার। অন্য বছরের মতো এবার বইমেলা জমেনি। ফলে মিলনমেলা ভাঙার অনুভূতিও নেই কারো। উল্টো প্রকাশকদের হতাশা আরেকটু বাড়িয়ে শেষ হলো বইমেলা।

করোনা পরিস্থিতির কারণে এবারের মেলা মিলনমেলা হয়ে ওঠেনি। যদিও এবারের আয়োজনটি ছিল সবচেয়ে বড় পরিসরে, কিন্তু অসময়ের মেলায় শুরু থেকেই লোকসমাগম ঘটেনি। মেলায় এবার লেখকরাও তেমন আসেননি। মূল মঞ্চের আলোচনা অনুষ্ঠান বন্ধ হয়ে যায় ১৫ দিন পর। সাংস্কৃতিক পরিবেশনা শুরুই করা যায়নি। বই বিক্রিও অতি নগণ্য।

সৃজনশীল বইয়ের প্রকাশকরা বইমেলাকে কেন্দ্র করে বিনিয়োগ করেন। নতুন বই প্রকাশ করেন। বিনিয়োগের একটি অংশ মেলায় বই বিক্রি করে তুলেও আনেন। এবার মেলার পেছনে প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানগুলোর যে ব্যয় হয়েছে তা উঠে আসেনি বলে জানান প্রকাশকরা।

আগামী প্রকাশনীর প্রকাশক ওসমান গনি জানান, নানা প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে এবারের বইমেলা শুরু হলেও প্রকাশকদের জন্য লাভের চেয়ে ক্ষতিই হয়েছে বেশি। স্টলভাড়া, নির্মাণ খরচ—এসব বাদ দিয়ে অনেক প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান বিক্রয়কর্মীদের পেছনে যে ব্যয় করেছে, সেটাও ওঠাতে পারেনি।

পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতি গতকাল মেলা প্রাঙ্গণে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর ক্ষতিপূরণ বাবদ ১০ কোটি টাকা দাবি করেছে। একই সঙ্গে প্রকাশনাশিল্পকে বাঁচিয়ে রাখতে ১০০ কোটি টাকার বই সরকারি উদ্যোগে কেনার দাবি জানিয়েছে। 

শেষ দিনে মেলায় এসেছে ৬৪টি নতুন বই। ২৬ দিন আয়ুষ্কালের মেলায় এবার সব মিলিয়ে নতুন বই প্রকাশিত হয়েছে দুই হাজার ৬৪০টি। এ সংখ্যা গত বছরের প্রায় অর্ধেক। গত বছর প্রকাশিত হয়েছিল চার হাজার ৯১৯টি নতুন বই।

এবারের অমর একুশে বইমেলায় অংশগ্রহণকারী প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে স্টলের নান্দনিক অঙ্গসজ্জার জন্য তিনটি প্রতিষ্ঠানকে ‘শিল্পী কাইয়ুম চৌধুরী স্মৃতি পুরস্কার’-এর জন্য নির্বাচন করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে এক ইউনিটের ‘উড়কি’, চার ইউনিটের ‘সংবেদ’ এবং প্যাভিলিয়ন ‘কথাপ্রকাশ’। প্রতিবছর সমাপনী অনুষ্ঠানে এ পুরস্কার তুলে দেওয়া হলেও এবার তা হয়নি। সর্বাধিকসংখ্যক মানসম্পন্ন বইয়ের জন্যও এবার কোনো পুরস্কার ঘোষণা করা হয়নি।