kalerkantho

শুক্রবার। ৩১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ মে ২০২১। ০২ শাওয়াল ১৪৪২

করোনার কাছে হার মানলেন সাংবাদিক হাসান শাহরিয়ার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১১ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



করোনার কাছে হার মানলেন সাংবাদিক হাসান শাহরিয়ার

সাংবাদিক নেতা হিসেবে তিনি দেশের সীমার বাইরে পৌঁছেছিলেন। সজ্জন ব্যক্তি হিসেবে সবার কাছেই ছিলেন গ্রহণযোগ্য। ব্যক্তিজীবনে ছিলেন চিরকুমার। ছিলেন ব্যক্তিগত লোভ-লালসার ঊর্ধ্বে। ক্যান্সারের সঙ্গে লড়েও করছিলেন স্বাভাবিক জীবনযাপন। তবে হার মানলেন করোনাভাইরাসের কাছে। জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক হাসান শাহরিয়ার আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

হাসান শাহরিয়ার ফুসফুসের সমস্যা নিয়ে গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন। অবস্থার অবনতি হলে আইসিইউ সাপোর্টের জন্য তাঁকে ইমপালস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে করোনা পরীক্ষায় ফল পজিটিভ আসে। গতকাল শনিবার সকাল ১১টার দিকে ওই হাসপাতালে তিনি শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

হাসান শাহরিয়ারের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহ্মুদ শোক প্রকাশ করেছেন। এক শোকবার্তায় শেখ হাসিনা বলেন, এ দেশের সাংবাদিকতায় হাসান শাহরিয়ারের ভূমিকা স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

হাসান শাহরিয়ারের গ্রামের বাড়ি সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে। তাঁর বাবা মকবুল হোসেন চৌধুরীও একজন খ্যাতিমান সাংবাদিক ছিলেন।

গতকাল শনিবার বাদ আসর জাতীয় প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গণে হাসান শাহরিয়ারের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় জাতীয় প্রেস ক্লাব, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি, ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন এবং সিলেট বিভাগ সাংবাদিক সমিতির পক্ষ থেকে তাঁর মরদেহে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। পরে রায়েরবাজার কবরস্থানে তাঁর লাশ দাফন করা হয়।

হাসান শাহরিয়ার তাঁর দীর্ঘ সাংবাদিকতা জীবনে কমনওয়েলথ জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি, ওকাবের (ওভারসিজ করেসপনডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ) সভাপতিসহ সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন।

হাসান শাহরিয়ার স্বাধীনতার আগে পাকিস্তানের দৈনিক দ্য ডনে কাজ করেন। মুক্তিযুদ্ধের পর তিনি দৈনিক ইত্তেফাকে যোগ দেন। তিনি কূটনৈতিক সাংবাদিক হিসেবে খ্যাতি অর্জন করেন। কূটনৈতিক রিপোর্টার, চিফ রিপোর্টার এবং সর্বশেষ নির্বাহী সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন শেষে ২০০৭ সালে অবসরে যান তিনি।

এ ছাড়া বিভিন্ন সময়ে তিনি নিউজউইক, আরব নিউজ, ডেকান হেরাল্ড পত্রিকার বাংলাদেশ সংবাদদাতা হিসেবে কাজ করেছেন হাসান শাহরিয়ার। কিছুদিন ইংরেজি দৈনিক ডেইলি সানের সম্পাদক ছিলেন। মৃত্যুর আগে তিনি চট্টগ্রামের পিপলস ভিউ পত্রিকার উপদেষ্টা সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তাঁর লেখা দুটি বই প্রকাশিত হয়েছে।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘হাসান শাহরিয়ার ছিলেন সহকর্মীবান্ধব একজন সজ্জন ও অত্যন্ত স্বাধীনচেতা সাংবাদিক। সাংবাদিকদের অধিকার ও মর্যাদার প্রশ্নে তিনি বরাবরই ছিলেন আপসহীন। সাংবাদিক সমাজের অভিভাবকের দায়িত্ব পালনেও তিনি সব সময় সক্রিয় ছিলেন।’