kalerkantho

রবিবার । ১ কার্তিক ১৪২৮। ১৭ অক্টোবর ২০২১। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সবিশেষ

মহাকাশে তিন টন বর্জ্য নিক্ষেপ!

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৭ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মহাকাশে তিন টন বর্জ্য নিক্ষেপ!

ছবি: ইন্টারনেট

‘মহাকাশ বর্জ্য’ ভবিষ্যতের পৃথিবীর জন্য বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে উঠতে পারে বলে বহুদিন ধরেই আশঙ্কা বিজ্ঞানীদের। এই পরিস্থিতিতে এবার জানা গেল, মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা সম্প্রতি মহাকাশে বিপুল পরিমাণে বর্জ্য নিক্ষেপ করেছে; সব মিলিয়ে যার ওজন ২.৯ টন। বলা হচ্ছে, এত পরিমাণে বর্জ্য এই প্রথম নিক্ষিপ্ত হলো মহাকাশে। গত সপ্তাহে আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন থেকেই ওই বর্জ্য নিক্ষিপ্ত হয়েছে। এর মধ্যে অন্যতম বাতিল ব্যাটারি।

ভবিষ্যতে কী হবে এই বর্জ্যের? প্রশ্ন উঠছে, এর থেকে কি সরাসরি মানবসভ্যতার কোনো বিপদ হতে পারে? বিজ্ঞানীরা অবশ্য সে ব্যাপারে আশ্বস্ত করছেন। তাঁরা জানিয়েছেন, আগামী ২৪ বছর ধরে পৃথিবীর কক্ষপথে চক্কর কাটবে ওই বর্জ্যগুলো। পরে তা প্রবেশ করবে পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে। এর মানে এই নয় যে রাতারাতি সেটা আছড়ে পড়তে পারে পৃথিবীর মাটিতে। আসলে বায়ুমণ্ডলে ঢুকে পড়ার পরই তা জ্বলে উঠে ছাই হয়ে যাবে। সুতরাং সেই ধরনের বিপদের কোনো রকম আশঙ্কা নেই।

তবে মহাকাশ বর্জ্য থেকে অন্য ধরনের বিপদের আশঙ্কা উড়িয়ে দিচ্ছেন না বিজ্ঞানীরা। প্রতিনিয়ত পৃথিবীকে পাক খেতে থাকা কৃত্রিম উপগ্রহগুলোর সঙ্গে এ ধরনের বর্জ্যের কোনো টুকরার সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে। জানা যাচ্ছে, সব মিলিয়ে পৃথিবীর চারপাশে এই মুহৃর্তে চক্কর কাটছে ১৬ কোটি মহাকাশ বর্জ্যের টুকরা। সেগুলোর গতি ঘণ্টায় ১৮ হাজার মাইল। তবে এগুলোর বেশির ভাগই খুব ছোট আকারের। তাদের থেকে বিপদের আশঙ্কা নেই। কিন্তু এদের মধ্যে অন্তত ১০ লাখ টুকরার দৈর্ঘ্য এক সেন্টিমিটারের বেশি। ভয় সেগুলোকে নিয়েই। সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন।



সাতদিনের সেরা