kalerkantho

বুধবার । ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭। ৩ মার্চ ২০২১। ১৮ রজব ১৪৪২

বসুন্ধরা চেয়ারম্যানের উদ্যোগ

‘বই পেলাম, লেখাপড়ার গতিও বেড়ে গেল’

রংপুর অফিস ও নীলফামারী প্রতিনিধি   

২৪ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



‘বই পেলাম, লেখাপড়ার গতিও বেড়ে গেল’

বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহানের উদ্যোগে এবং বসুন্ধরা নুডলসের সহযোগিতায় কালের কণ্ঠ শুভসংঘ গতকাল নীলফামারীর রামগঞ্জ কলেজের শিক্ষার্থীদের পাঠ্য বইসহ শিক্ষা উপকরণ দেয়। ছবি : কালের কণ্ঠ

‘এক মাস আগে দ্বাদশ শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হয়েছি। বাবা এখন পর্যন্ত বই কিনে দিতে পারেননি। আজ বই পেয়ে খুবই ভালো লাগছে।’ ক্লাসের নতুন বই-খাতা ও ব্যাগ পেয়ে এভাবেই উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে নীলফামারীর রামগঞ্জ কলেজের শিক্ষার্থী জহুরা আকতার। জহুরা ছাড়াও বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহানের উদ্যোগে এবং বসুন্ধরা নুডলসের সহযোগিতায় কালের কণ্ঠ শুভসংঘের দেওয়া পাঠ্য বইসহ শিক্ষা উপকরণ পেয়ে এমন উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে আরো অনেক শিক্ষার্থী। গতকাল শনিবার নীলফামারীর প্রত্যন্ত অঞ্চলের রামগঞ্জ কলেজের ২৫০ শিক্ষার্থীর মধ্যে এসব বিতরণ করা হয়। 

দুপুর ১২টার দিকে রামগঞ্জ কলেজ চত্বরে এ উপলক্ষে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বই পেয়ে কলেজের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী লিয়ন ইসলাম বলে, ‘বই না থাকায় থেমে যাচ্ছিল আমার লেখাপড়া। এখন বই পেলাম। লেখাপড়ার গতিও বেড়ে গেল। ধন্যবাদ জানাই কালের কণ্ঠ শুভসংঘ ও বসুন্ধরা নুডলসকে।’ সুলতানা রাজিয়া একাদশ শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হয়েছে শুভসংঘের দেওয়া বই পেয়ে। ওই সহযোগিতা না পেলে হয়তো থেমে যেত তার লেখাপড়া। এবার দ্বিতীয় বর্ষের বই পেয়ে সে বলে, ‘কলেজের শিক্ষার্থীরা দরিদ্র পরিবারের। তাদের অনেকেই বিভিন্ন কাজ করে বই কেনার টাকা জোগাড় করে। এখন আর সেটি করতে হবে না।’

নীলফামারী জেলা শুভসংঘের আয়োজনে অনুষ্ঠানে মশিউর রহমান ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ সরওয়ার মানিক, রামগঞ্জ কলেজের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সফিয়ার রহমান, বসুন্ধরা ফুড অ্যান্ড বেভারেজ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের এরিয়া সেলস ম্যানেজার আব্দুল কাদের, নীলফামারীর জেলা প্রশাসক মো. হাফিজুর রহমান চৌধুরী, শুভসংঘের পরিচালক জাকারিয়া জামান, কালের কণ্ঠ’র রংপুর ব্যুরোপ্রধান স্বপন চৌধুরী, নীলফামারী প্রতিনিধি ভূবন রায় নিখিল, কেন্দ্রীয় শুভসংঘের যুগ্ম সম্পাদক সোহেল রানা স্বপ্ন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া রংপুর ও নীলফামারী শুভসংঘের বন্ধুরা উপস্থিত ছিলেন। সভাপতিত্ব করেন নীলফামারী শুভসংঘের সভাপতি ও রামগঞ্জ কলেজের অধ্যক্ষ মো. আনোয়ার হোসেন।

এমন মহতী উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী বলেন, ‘কালের কণ্ঠ শুভসংঘের এমন উদ্যোগ আলোর দুয়ার খুলে দেওয়ার কাজ করেছে। সে আলো একটি শিক্ষিত ও উন্নত জাতি গঠনে কাজ করবে।’

শিক্ষাবিদ সরওয়ার মানিক বলেন, ‘শিক্ষাজীবনে সফলতা আনতে শিক্ষার্থীদের পাঠ্য বই বড় একটি সম্বল। কালের কণ্ঠ শুভসংঘ শিক্ষার্থীদের সহায়তা করার যে মহতী উদ্যোগ নিয়েছে, সেটি অব্যাহত রাখার আহ্বান জানাচ্ছি।’

হতদরিদ্র পরিবারের শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দেওয়াকে ব্যতিক্রমী ঘটনা হিসেবে উল্লেখ করে তিনি কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন ও বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা