kalerkantho

শনিবার । ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৪ রজব ১৪৪২

সবিশেষ

একবার জাল ফেলে মিলল ছয় লাখ টাকার মাছ

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি   

২৩ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



একবার জাল ফেলে মিলল ছয় লাখ টাকার মাছ

জোয়ার-ভাটার খেলায় ভাগ্য খুলেছে রফিকুল ইসলাম (৪৯) নামে এক জেলের। সুন্দরবনসংলগ্ন রায়মঙ্গল নদীতে একবার জাল ফেলে পেয়েছেন ১২৬টি লাউভোলা মাছ। একেকটি মাছের ওজন সাত থেকে ২০ কেজি পর্যন্ত। মোট ওজন এক হাজার ৫১ কেজি। গতকাল তিনি ৫৬০ টাকা কেজি দরে মাছগুলো বেচে পেয়েছেন পাঁচ লাখ ৮৮ হাজার টাকা।

রফিকুল সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপকূলের টেংরাখালী গ্রামের বাসিন্দা। রায়মঙ্গল নদীতে মাছ ধরেই তিনি জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন। রফিকুল জানালেন, গত বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে নদীতে জোয়ার আসে। সেই জোয়ারে তিনি জাল ফেলেন। ভাটার টানে জাল তোলা শুরু করলে উঠে আসে ১২৬টি  লাউভোলা মাছ।

সামুদ্রিক মাছ হিসেবে লাউভোলা খেতে বেশ সুস্বাদু। স্বাদের পাশাপাশি এই মাছের চাহিদা ও মূল্য চড়া হওয়ার মূল কারণ—মাছটির ঔষধি গুণ। বিদেশে এই মাছের পটকার (ফুলকা) ব্যাপক চাহিদা আছে।  ভারতসহ বিভিন্ন দেশে এই মাছ রপ্তানি হয়। গ্রেড অনুযায়ী প্রতি কেজি পটকার মূল্য ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা। লাউভোলা মাছের পটকা দিয়ে মূল্যবান ওষুধ (ক্যাপসুলের খোল) ও প্রসাধনী তৈরি হয়।

উপজেলার বংশীপুর গ্রামের মাছ ব্যবসায়ী নূর হোসেন গাজী জানান, খবর পেয়ে তিনি রফিকুলের ধরা মাছগুলো কিনে নেন। পরে স্থানীয় সোনার মোড়ে হারুনার রশিদের মৎস্য আড়ত মদিনা ফিসে তা ছয় লাখ ২০ হাজার টাকায় বিক্রি করেন নূর হোসেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা