kalerkantho

সোমবার। ৪ মাঘ ১৪২৭। ১৮ জানুয়ারি ২০২১। ৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সরকারি কর্মচারী

অবসরের পর পেশা বাছতে বা বিদেশ যেতে অনুমতি লাগবে না

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৭ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অবসরের পর পেশা বাছতে বা বিদেশ যেতে অনুমতি লাগবে না

অবসরে যাওয়ার পর বা অবসরোত্তর ছুটি (পিআরএল) শুরু হওয়ার পর অন্য প্রতিষ্ঠানে চাকরি নেওয়া, অন্য পেশা গ্রহণ বা বিদেশযাত্রার ক্ষেত্রে সরকারের অনুমতি নেওয়ার দরকার নেই। অনেক বিষয়ে সরকারি কর্মচারীরা তাঁদের আগের প্রতিষ্ঠানে নানা সুযোগ-সুবিধার আবেদন করেন। এতে স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে চাকরি শেষ হয়ে যাওয়া সরকারি কর্মচারীদের জন্য একটি পরিপত্র জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। ‘সরকারি চাকরি আইন, ২০১৮’-এর এই বিধানের কথা মনে করিয়ে দিয়ে গত বুধবার পরিপত্র জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

এতে বলা হয়েছে, চাকরি থেকে অবসর গ্রহণ বা অবসরোত্তর ছুটি (পিআরএল) আরম্ভের পরও কোনো কোনো কর্মচারী বৈদেশিক বা বেসরকারি বা প্রকল্পে চাকরি গ্রহণ, অন্য কোনো পেশা গ্রহণ বা ব্যবসা পরিচালনা, বিদেশযাত্রার জন্য অনুমতি বা পাসপোর্ট নবায়নে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে আবেদন করেন। সরকারি চাকরি আইন, ২০১৮-এর ৫২ ধারার বিধান মতে অবসর গ্রহণের পর সংশ্লিষ্ট কর্মচারী সরকার বা কোনো নির্দিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণমুক্ত থাকেন বিধায় এমন আবেদন নিষ্পত্তিতে শ্রম ও সময়ের অপচয় ঘটছে।

পরিপত্রে বলা হয়েছে, আইনের ৫২ ধারায় বলা হয়েছে- চাকরি থেকে অবসরে যাওয়ার পর চুক্তিভিত্তিক কর্মরত থাকা ছাড়া কোনো ব্যক্তির বৈদেশিক বা বেসরকারি চাকরি বা কোনো প্রকল্পে চাকরি গ্রহণ, অন্য কোনো পেশা গ্রহণ, ব্যবসা পরিচালনা এবং বিদেশযাত্রার জন্য সরকার বা কর্তৃপক্ষের অনুমতি গ্রহণের প্রয়োজন নেই। তবে শর্ত থাকে যে, সরকার বা উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ কোনো বিশেষ ক্ষেত্রে, অনুরূপ ভিন্ন চাকরি বা পেশা গ্রহণ, ব্যবসা পরিচালনা, বিদেশযাত্রায় বারণ বা অনুমতি গ্রহণে বাধ্যবাধকতা আরোপ করে আদেশ দিতে পারবে।

এ অবস্থায় চাকরি থেকে অবসর গ্রহণের পর অবসরোত্তর ছুটি আরম্ভের তারিখ থেকে সরকারি চাকরি আইন অনুযায়ী কোনো ব্যক্তি চুক্তিভিত্তিক কর্মরত থাকা ছাড়া, বৈদেশিক বা বেসরকারি চাকরি বা কোনো প্রকল্পে চাকরি গ্রহণ, অন্য কোনো পেশা গ্রহণ বা ব্যবসা পরিচালনা এবং বিদেশযাত্রা বা সংশ্লিষ্ট অন্যান্য কার্যক্রম যেমন—নতুন পাসপোর্ট গ্রহণ ও পাসপোর্ট নবায়ন ইত্যাদি ক্ষেত্রে সরকার বা কর্তৃপক্ষের অনুমতির প্রয়োজন হবে না। সরকারি চাকরি আইনের এই বিধান অনুসরণ করতে সংশ্লিষ্ট সব মন্ত্রণালয়, বিভাগ, অধিদপ্তর, পরিদপ্তর ও সংস্থাকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

মন্তব্য