kalerkantho

শুক্রবার । ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৭ নভেম্বর ২০২০। ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

সবিশেষ

চোর ধরতে হুলুস্থুল

রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি    

২২ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চোর ধরতে হুলুস্থুল

স্থানীয় জনতা, পুলিশ আর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের রীতিমতো ঘোল খাইয়ে ছেড়েছেন এক মুরগি চোর। চোর ধরতে ঘটে হুলুস্থুল কাণ্ড! ধাওয়া খেয়ে পুকুরে ঝাঁপ দেওয়া চোরকে কোনোভাবেই বাগে আনতে পারছিল না স্থানীয় জনতা। ওই চোরকে পুকুর থেকে তুলে আনতে পাশের ফাঁড়ি থেকে ছুটে আসে পুলিশ। নিরুপায় পুলিশ সর্বশেষ ডেকে আনে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের। অবশেষে ফায়ার সার্ভিসের ছয় কর্মী পুুকুরে নেমে ধরে আনেন মুরগি চোর। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শনিবার সকালে চট্টগ্রামের রাউজানের পূর্ব গুজরা ইউনিয়নের আন্ধারমানিক গ্রামের অলিমিয়া হাটে।

বাজারের ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা জানায়, গতকাল সকালে অলিমিয়া হাটের মো. বশরের দোকানে আটটি মুরগি বিক্রি করতে আসেন ছিটিয়াপাড়ার জিসান। প্রায়ই তিনি মুরগি বিক্রি করতে বাজারে আসতেন। গতকাল সকাল সকাল মুরগি নিয়ে আসায় সন্দেহ হয় বশরের। এ সময় মুরগি কোথা থেকে এনেছেন জিসানের কাছে জানতে চাইলে তিনি চোরাই মুরগি বলে দৌড়ে পালাতে থাকেন। একপর্যায়ে ওই ব্যবসায়ী ও স্থানীয় জনতা তাঁকে পাকড়াও করার চেষ্টা করলে জিসান বাজারের পাশের একটি পুুকুরে ঝাঁপ দেন। স্থানীয় জনতা তাঁকে পুকুর থেকে ওঠানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়। পরে স্থানীয় পূর্ব গুজরা পুলিশ ফাঁড়ি (তদন্ত) কেন্দ্রে খবর দেওয়া হয়। ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। পুলিশ সদস্যদের ডাকেও জিসান পুকুর থেকে না উঠলে পরে রাউজান ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড ডিফেন্স সার্ভিসের কর্মীদের ডাক পড়ে। প্রায় আড়াই ঘণ্টা পর ফায়ার সার্ভিসকর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে পুকুরে নেমে তাঁকে তুলে আনেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য দিদারুল আলম বলেন, ‘পুকুর থেকে ওঠানোর পর চোর জিসানকে স্থানীয় পূর্ব গুজরা পুলিশ ফাঁড়ি (তদন্ত) কেন্দ্রের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা