kalerkantho

শুক্রবার । ১৪ কার্তিক ১৪২৭। ৩০ অক্টোবর ২০২০। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ফখরুল বললেন

অবলীলায় মিথ্যা বলেছেন সিইসি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অবলীলায় মিথ্যা বলেছেন সিইসি

সদ্য শেষ হওয়া তিনটি সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনের ফল বাতিল চেয়ে দুই দিনের বিক্ষোভ কর্মসূচি দিয়েছে বিএনপি। দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, একাদশ সংসদ নির্বাচনের মতোই বিরোধী দলের এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়ে ভোট ছিনতাই করা হয়েছে। তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন (ইসি) ছিল নির্বিকার। প্রধান নির্বাচন কমিশনারও (সিইসি) অবলীলায় মিথ্যা কথা বলেছেন, কোনো অভিযোগ নাকি তাঁরা (বিএনপির প্রার্থী) দেননি। অথচ ঢাকা থেকেই ১৬২টি অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।’

গতকাল রবিবার দুপুরে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে পাবনা-৪, ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনের উপনির্বাচনের ভোট নিয়ে সিইসির বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে গত শনিবার দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে বিএনপির স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্ত তুলে ধরা হয়। এ ছাড়া ওই দিন রাতে যশোরে বিএনপির স্থায়ী কমিটির প্রয়াত সদস্য তরিকুল ইসলামের বাসভবন, জেলা বিএনপির কার্যালয়সহ জেলা নেতাদের বাসায় হামলার নিন্দা জানান মির্জা ফখরুল। আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ এনে তিনি জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান।

উপনির্বাচনের ফল বাতিল এবং পুনরায় ভোটগ্রহণের দাবিতে আগামী ১৯ অক্টোবর সারা দেশে মহানগর ও জেলায় এবং ২০ অক্টোবর থানা ও উপজেলায় বিক্ষোভ সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করেন ফখরুল। তিনি বলেন, সুপরিকল্পিভাবে জনগণকে ভোটাধিকারবঞ্চিত করে ইসি দেশে একদলীয় শাসনব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। ইসি সরকারের ‘বশংবদ ক্রীড়নকের’ ভূমিকা পালন করছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

পাবনা-৪, ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ উপনির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল ও সরকারের প্রশাসনের ভোট কারচুপির ঘটনা তুলে ধরে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘ওরা (ক্ষমতাসীন দল) জাল ভোট দিয়ে ভোট ডাকাতি করেছে। ইসি ইভিএম দিয়ে ভুয়া ফলাফল তৈরি করে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের বিজয়ী ঘোষণা করেছে। আমরা নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করেছি এবং নির্বাচন বাতিল করে পুনরায় নির্বাচনের দাবি জানাচ্ছি।’

সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, ‘তিনি (খালেদা জিয়া) মুক্ত নন। উনার সাজা স্থগিত করা হয়েছে। সাজা স্থগিত হলে তো তাঁর ওপর কোনো বিধিনিষেধ থাকার কথা না। সোজা কথা বললে বলা যায়, এটা হচ্ছে গৃহে অন্তরীণ করা।’

মির্জা ফখরুল জানান, বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠকে চাল ডাল পেঁয়াজ আলুসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করে সরকারের ব্যর্থতার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। তিনি বলেন, সরকারের সদিচ্ছার অভাব ও ব্যর্থতাই ধর্ষণের মতো অপরাধ বৃদ্ধি পাচ্ছে। মৃত্যুদণ্ডের বিধান সংযোজন করা ধর্ষণ রোধে একমাত্র সমাধান নয়। তাঁর অভিযোগ, ধর্ষকদের সরকারি দলের প্রশ্রয় অথবা ধর্ষক সরকারি দলের সদস্য বলে কোনো বিচার হয় না। পুলিশের ধর্ষণবিরোধী সমাবেশও লোক দেখানো।

কোনো মধ্যবর্তী নির্বাচন হবে না—আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের ব্যাপারে জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা তো এ কথা (মধ্যবর্তী) এখনো বলিনি। গত (একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন) নির্বাচনই তো মানছি না, আমরা ওইটাকে অবৈধ বলছি, ওইটাকে বাতিল করতে বলছি। মধ্যবর্তী নির্বাচনের কথা যখন বলব তখন দল থেকে বলা হবে।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) প্রতিবেদনে যেখানে ভারতের জিডিপি (মোট দেশজ উত্পাদন) ১০ শতাংশ কমে যাওয়ার সম্ভাবনার কথা বলা হয়েছে, সেখানে বাংলাদেশের জিডিপি বেশি করে দেখানোর পেছনে আরো অনেক উদ্দেশ্য আছে।

 

মন্তব্য