kalerkantho

শুক্রবার । ১৪ কার্তিক ১৪২৭। ৩০ অক্টোবর ২০২০। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

স্বাস্থ্যে প্রশাসন ক্যাডারের পদায়ন নিয়ে তীব্র ক্ষোভ

► স্বাস্থ্য প্রশাসনে সিভিল প্রশাসনের কর্মকর্তাদের যথেচ্ছ পদায়ন তীব্র সমালোচনা
► বিএমএ-স্বাচিপ যৌথ সভা আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্বাস্থ্যে প্রশাসন ক্যাডারের পদায়ন নিয়ে তীব্র ক্ষোভ

স্বাস্থ্য প্রশাসনে সিভিল প্রশাসনের কর্মকর্তাদের যথেচ্ছ পদায়ন ও আধিপত্যের তীব্র সমালোচনা করেছেন চিকিৎসক নেতারা। দীর্ঘদিন ধরেই বিষয়টি নিয়ে স্বাস্থ্য প্রশাসন ও সিভিল প্রশাসনের মধ্যে এক ধরনের সংকট চললেও গতকাল রবিবার প্রথমবারের মতো প্রকাশ্যে বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ), স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) নেতারা এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এসব বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বক্তব্য দিয়েছেন। গতকাল ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে চিকিৎসক নেতারা ওই ক্ষোভের কথা জানান। এমনকি আজ সোমবার বিষয়টি নিয়ে বিএমএ ও স্বাচিপ একটি যৌথ সভার আয়োজন করেছে বলেও জানা গেছে। অনুষ্ঠানে চিকিৎসকদের পদগুলোতে সিভিল প্রশাসনের কর্মকর্তাদের পদায়নের কয়েকটি উদাহরণ তুলে ধরে এর সমালোচনা করা হয়।

রাজধানীর একটি হোটেলে বাংলাদেশের সোসাইটি অব সার্জনস আয়োজিত ‘রোল অব সার্জনস ইন কভিড পেন্ডামিক : বাংলাদেশের প্রেক্ষিত’ সংক্রান্ত ওই আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, কভিড শুরুর সময় দেশে হাতে গোনা দু-একটি হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন ছিল। বর্তমানে দেশের ডেডিকেটেড কভিড হাসপাতালগুলোসহ ৭৮টি সরকারি হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, কভিডে দেশের ১১৫ জন অভিজ্ঞ চিকিৎসক মারা গেছেন, যাঁদের মধ্যে শুধু সার্জন (শৈল্যবিদ) ২৬ জন।

নার্স, পুলিশ, সাংবাদিকসহ দায়িত্বরত আরো অনেকে মারা গেছেন। এই ক্ষতি পূরণ হওয়ার নয়। তাঁদের এই ত্যাগের মাধ্যমে দেশের মানুষের কর্মক্ষেত্র সচল রয়েছে।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য অধ্যাপক ডা. এম এ আজিজ , বিএমএ সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, স্বাচিপ সভাপতি অধ্যাপক ডা. এম ইকবাল আর্সলান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এ বি এম খুরশীদ আলম, বিএমএ সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. এহতেশামুল হক চৌধুরী, স্বাচিপ সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ডা. এম এ আজিজ এবং বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের সভাপতি অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন সোসাইটি অব সার্জনস অব বাংলাদেশের সভাপতি অধ্যাপক এ এইচ এম তৌহিদুল আলম। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. নূর হোসেন ভূঁইয়া।

মন্তব্য